এখনও গ্র্যান্ডস্লাম জেতার ক্ষমতা রাখেন ফেডেরার: রোচ

টনি রোচ

কলকাতা:  ভারতের প্রাক্তন ডেভিস কাপার জয়দীপ মুখোপাধ্যায়ের আমন্ত্রণে শহরে এসেছিলেন টেনিসের কিংবদন্তি টনি রোচ৷ চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে জয়দীপের টেনিস অ্যাকাডেমিতে দেশের এক নম্বর সিঙ্গলস টেনিস তারকা সোমদেব দেববর্মন সহ-বেশ কিছু ডেভিস কাপারদের ট্রেনিং করিয়েছেন রোচ৷প্রাক্তন এই টেনিস তারকার আলাদা করে পরিচয় দেওয়ার দরকার নেই৷১৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম ডাবলস, দু’টি মিক্সড ডাবলস ও একটি সিঙ্গলস খেতাব রয়েছে তাঁর কেরিয়ারে৷খেলোয়াড় হিসেবে অসাধারণ সাফল্য পাওয়ার পাশাপাশি কোচ হিসেবেও বিশ্বজোড়া খ্যাতি রয়েছে এই অস্ট্রেলিয়ান নাগরিকের৷ ইভান লেন্ডি,রজার ফেডেরার ও লিটন হিউইট ও প্যাট র‍্যাফটারের মতো কিংবদন্তি টেনিস খেলোয়াড়দের ট্রেনিং দিয়েছেন তিনি৷এছাড়াও ভারতীয়দের মধ্যে লিয়েন্ডার পেজ, সানিয়া মির্জারাও রোচের তত্ত্বাবধানে অতীতে খেলেছেন৷নব্বই দশকের পর ফের কলকাতায় এলেন রোচ৷ফেডেরারদের কোচের নতুন মিশন ডেভিস কাপে ভারতীয় খেলোয়াড়দের আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া৷ কিংবদন্তী এই কোচ এবার কলকাতা২৪x৭-এর মুখোমুখি৷তাঁর সাক্ষাৎকার নিলেন শুভপম সাহা

প্রশ্ন:  ভারতীয় টেনিস খেলোয়াড়দের আপনি কীভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবছেন ?

রোচ: ভারতীয় টেনিসের একটা ঐতিহ্যবাহী ঘরানা রয়েছে৷ডেভিস কাপে ভারতের পারফরম্যান্স বরাবরই ভালো৷এখানেও অনেক প্রতিশ্রুতিবান খেলোয়াড়রা রয়েছে ৷ আমি সাত দিনের ক্যাম্পে মূলত ম্যাচ প্র্যাকটিসের উপরেই বেশি নজর দেব৷খেলোয়াড়দের টেকনিক্যাল দিকগুলোও শুধরে দেওয়ার চেষ্টা করব ৷টেনিস এমন একটা খেলা যেখানে প্রতি মুহূর্তে উন্নতি করা যায়৷কঠোর পরিশ্রম করলেই লেন্ডি বা ফেডেরার হওয়া যায়৷টেনিস যথেষ্ট কঠিন খেলা ৷তবে কঠোর অধ্যাবশায় ও নিজের মধ্যে কিছু করে দেখানোর জেদ থাকলে কেরিয়ারে সাফল্য আসবেই ৷এই সাত দিনের ক্যাম্পে আমার সেরাটা দেওয়ারই চেষ্টা করব৷ আমি আশাবাদী, ডেভিস কাপে ভারত আবার ভালো ফল করবে৷ROACH INTERVIEW 2

প্রশ্ন: লেন্ডি আর ফেডেরার দু’জনকেই কোচিং করিয়েছেন আপনি৷ কাকে কোচিং করানো সবথেকে বেশি কঠিন বলে মনে হয়েছে আপনার?

রোচ: সত্যি বলতে দু’জনেই অসাধারণ খেলোয়াড়৷প্রচন্ড কঠোর পরিশ্রম করতে পারে৷সর্বোচ্চ পর্যায়ে নিজেদেরকে মেলে ধরার জন্য যা যা দরকার তাই ওরা করে৷ ডায়েট চার্ট থেকে শুরু করে জিম সেশন সবই ওদের মাপা৷ এর এদিক-ওদিক হয় না কখনও ৷ তাই বর্তমানে ওরা নিজেদেরকে এই জায়গায় নিয়ে যেতে পেরেছে৷তবে ওদের মধ্যে তুলনা করাটা ঠিক হবে না৷কারণ লেন্ডি-রজারের খেলার স্টাইল সম্পূর্ণ আলাদা৷

প্রশ্ন: কখনও ভেবেছিলেন ৩৩ বছর বয়সেও ফেডেরার এরকম দাপটে টেনিস খেলতে পারবেন?

রোচ: না কখনই ভাবিনি৷এতটা আশাও করিনি৷রজার ভীষণ ভাগ্যবান৷ ও সেভাবে কোনওদিন বড় রকমের চোট পায়নি৷তাই ওর কেরিয়ার এত ভালো এগিয়েছে৷ আমার মনে হয় আরও কয়েক বছর রজার চুটিয়ে খেলতে পারবে৷ আরও গ্র্যান্ড স্ল্যাম আসতে পারে ওর ঝুলিতে৷এণনকী, আমি মনে করি ও আবার উইম্বলডনও জিততে পারে৷রজার যতদিন চাইবে ততদিন টেনিস খেলে যেতে পারবে৷

প্রশ্ন: অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সময় দেখা যায় অধিকাংশ খেলোয়াড়ই তীব্র দাবদাহের অভিযোগ করেন৷এ ব্যাপারটা নিয়ে আপনার কী মত ?

রোচ: এটা খেলার অঙ্গ৷ শুধু অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কেন, নিউ ইয়র্ক ওপেন এবং যুক্তরাষ্ট্র ওপেনেও যথেষ্ট গরম থাকে৷তাই খেলোয়াড়দের মানসিক প্রস্তুতি নিয়েই মাঠে নামা উচিৎ৷অন্তত পক্ষে তাঁরা যেন পাঁচটি সেট টানা খেলার জন্য প্রস্তুত থাকেন৷এটা অপেশাদারমূলক মনোভাব৷

প্রশ্ন: এটা অনেক সময়ই দেখা যায় টানা পাঁচ-সাত বছর সিঙ্গলস খেলার পর ভারতীয় খেলোয়াড়রা ডাবলসের দিকেই ঝুঁকে পড়েন৷ এটা কেন হয়?

রোচ:  এটা শারীরিক গঠনের উপর নির্ভর করে৷অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতীয় খেলোয়াড়রা অপেক্ষাকৃত দুর্বল৷তাই এই সমস্যায় পড়তে হয় তাঁদের৷কিন্তু জাপানের কেই নিশিকোরি সেক্ষেত্রে ব্যতিক্রম৷ও নিজেকে আলাদা জায়গায় নিয়ে গিয়েছে৷

প্রশ্ন: অ্যান্ডি মারেকে কোচিং করাচ্ছেন প্রাক্তন এক নম্বর মহিলা তারকা এমেলি মোরেসমো ৷পুরুষ খেলোয়াড়কে মহিলা কোচিং করাচ্ছেন৷ এটা নিয়ে আপনার কি মত ?

রোচ:  এটা আমি খুব ভালো চোখেই দেখছি৷ হয়তো মোরেসমোর সংস্পর্শে এসে মারে অসাধারণ টেনিস খেলবে আগামী দিনে৷দু’জনের অভিজ্ঞতাই কাজে লাগবে৷

প্রশ্ন: এই মুহূর্তে কার খেলা আপনাকে সবচেয়ে বেশি মুগ্ধ করছে ?

রোচ: আমার পছন্দের তালিকায় এখন একজনই৷তিনি নোভাক জকোভিচ৷

Advertisement
----
-----