কোহলি ছুরি মেরেছিল ধাওয়ানকে, বললেন ধোনি

মেলবোর্ন: ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির একটা কথাতেই ক্রিকেট দুনিয়ায় তোলপাড় পড়ে গিয়েছে৷ ‘বিরাট কোহলি একটা ছুরি দিয়ে কুপিয়েছিল শিখর ধাওয়ানকে। সেরে ওঠার পর আমরা ওকে ব্যাট করতে পাঠাই।’ যে কেউ নয়, এই মন্তব্য ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক স্বয়ং মহেন্দ্র সিং ধোনির। তবে, পুরোটাই মজার ছলে।
এমনিতে গাব্বায় দ্বিতীয় টেস্টে চতুর্থ দিনে ভারতের শোচনীয় পরাজয়ের পর তাঁর ড্রেসিং রুম মন্তব্য ঝড় তুলেছিল ত্রিকেট দুনিয়ায়। তারপর এই মন্তব্যের পর যদি ধোনি উপসংহারটি না জুড়তেন ওয়ার্নার ব্রাদার বোধহয় এই নিয়ে আস্ত একটা সিনেমাই বানিয়ে ফেলত।
এমনিতে ব্রিসবেনে টেস্টের চতুর্থ দিন ভারতের ড্রেসিং রুমে ব্যাট করতে যাওয়া নিয়ে কোহলি আর ধাওয়ানের বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ার কথা এখন মোটামুটি ওপেন সিক্রেট। মাহি ড্রেসিং রুমে ‘আনরেস্ট’ বলতে যে এই দু’জনের ঝগড়ার কথা বলেছিলেন তা এখন সবারই জানা।
ব্রিসবেন টেস্টের চলাকালীন নেট প্র্যাকটিসের সময় কব্জিতে চোট লাগে শিখর ধাওয়ানের। শেষ মুহূর্তে তিনি জানান ব্যাট করতে পারবেন না। ১০ মিনিটের নোটিশে বাধ্য হয়েই ব্যাট হাতে মাঠে নামতে হয় কোহলিকে। আর এর মাঝেই ড্রেসিং রুমে কথাকাটাকাটি হয় দিল্লির এই দুই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের। অন্দরের খবর, এই দু’জনের সম্পর্কে বেশ তিক্ততা তৈরি হয়েছে এই ঘটনায়।
তবে সেদিন ড্রেসিং রুমের ‘আনরেস্ট’-এর কথা বললেও নিজের দলের অন্যতম সেরা দুই অস্ত্রের মধ্যে মন কষাকষির কথা কার্যত উড়িয়ে দিলেন মাহি। তাঁর দাবি পুরোটাই মিডিয়ার তৈরি গুজব। ধোনি বলছেন, ‘এই ধরণের খবর ট্যাবলয়েড গুলোর বিক্রি বাড়ায় জানি। মার্ভেল আর ওয়ার্নার ব্রাদার এই খবর নিয়ে ছবি করতে পারে। কোথা থেকে যে এই খবর গুলো আসে কে জানে।’
মিডিয়াকে মোটামুটি চ্যালেঞ্জ করে ধোনি জানিয়েছেন, ‘যদি আমাদের মধ্যে কেউ এই কথা আপনাদের জানিয়ে থাকে, তাহলে আপনারা তার নামটা আমাদের বলুন। সত্যিই সে ব্যক্তির কল্পনার তারিফ করতে হয়। যা ঘটেনি তাকেই সে যে ভাবে রটিয়েছে তার উচিৎ কোন মুভি কোম্পানির সঙ্গে কাজ করা। আমাদের ড্রেসিং রুমে থাকার যোগ্যতা তার নেই। সে এমন কিছু রটিয়েছে যেটা আসলে ঘটেইনি।’
তবে, বক্সিং ডে টেস্টের আগে ভারতের প্র্যাকটিসে কিন্তু কোহলি আর ধাওয়ানের মধ্যে কোনও ঝগড়া বা মনোমালিন্যের আভাস দেখতে পাওয়া গেল না। দু’জনে বেশ খোশ মেজাজেই প্র্যাকটিস চলাকালীন আলোচনা করলেন, খুনসুটি করলেন৷ ভারতের ড্রেসিং রুম ‘কলহ’ গাব্বার পিচে সত্যিই যদি সমাধিস্ত হয়ে থাকে তাহলে দলের পক্ষে সুখবর। মেলবোর্ন টেস্টেও যদি ভারতের ভরাডুবি হয় ক্যাপ্টেনকে তখন কিন্তু অন্য যুক্তি খুঁজতে হবে।
মিস্টার ধোনি, আর ইউ রেডি?

Advertisement ---
---
-----