চিকিৎসায় গাফিলতিতে ক্ষতিপূরণ ৫ কোটি

 চিকিৎসায় গাফিলতির মামলায় যুগান্তকারী রায় দিল সুপ্রিমকোর্ট। ১৯৯৮-এ কলকাতার আমরি হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার শিকার হয়েছিলেন প্রবাসী চিকিৎসক অনুরাধা সাহা৷ কলকাতার আমরি হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার কারণে মাত্র ৩৬ বছর বয়সেই মৃত্যু হয় তাঁর৷  ভুল চিকিৎসায় স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে এই অভিযোগে মামলা দায়ের করেন অনুরাধার স্বামী কুণাল সাহা৷ সেই মামলার প্রেক্ষিতেই বৃহস্পতিবার যুগান্তকারী রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷ অনুরাধার ভুল চিকিৎসায় ৫ কোটি ৯ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷ দোষী সাব্যস্ত  তিন চিকিৎসকের প্রত্যেককে ২৫ লক্ষ টাকা করে দিতে হবে৷  আট সপ্তাহের মধ্যে এই ক্ষতিপূরণের অর্থ অনুরাধা সাহার স্বামী কুণাল সাহার হাতে তুলে দিতে হবে৷ সুপ্রিম কোর্টের এই রায় এখনও পর্যন্ত চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগের সর্বোচ্চ শাস্তি বলে জানা গিয়েছে৷ অনুরাধার স্বামী কুণাল সাহা  সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেছেন, এই রায়ে আমি খুশি৷ এই রায় সমাজের কাছে দৃঢ় বার্তা দেবে৷

১৯৯৮-এর মে মাসে আমেরিকা প্রবাসী চিকিৎসক দম্পতি কুণাল ও অনুরাধা সাহা কলকাতায় ছুটি কাটাতে এসেছিলেন। কলকাতায় আসার পরই অনুরাধা টক্সিক এপিডারমাল নেক্রোসিস নামের বিরল রোগে আক্রান্ত হন। কলকাতার আমরিতে  হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা শুরু হয়৷ কিন্তু তাঁর অবস্থার বিন্দুমাত্র উন্নতি না হওয়ায় অনুরাধাকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে মুম্বইয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই এক হাসপাতালে ২৮মে মারা যান অনুরাধা। ১৯৯৮ সালেই অনুরাধার স্বামী কুণাল সাহা আমরির বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। তাঁর দীর্ঘ ১৫ বছরের লড়াইয়ের অবসান হল বৃহস্পতিবার।

Advertisement ---
---
-----