ডেপুটেশন দিতে গিয়ে থানায় ঢুকে তৃণমূলের ‘দাদাগিরি’

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: কলকাতায় দিদির আর নলহাটিতে দাদার রাজ৷ সোনালি গুহ-র জুতোপেটা কাণ্ডকে ঘিরে একদিকে যেমন বৃহস্পতিবার উত্তপ্ত খাস শহর কলকাতা, তেমনই তৃণমূলের দাদাগিরির আর এক নজির দেখা গেল বীরভূমের নলহাটিতে৷ নলহাটি থানায় ঢুকে অফিসার ইনচার্জকে শাসানোর অভিযোগ উঠেছে নলহাটির তৃণমূল শহর কমিটির সদস্য এক্রামূল হকের বিরুদ্ধে৷
কারণটা জানতে গেলে অবশ্য পিছিয়ে যেতে হবে মাসখানেক আগে৷ গত নভেম্বর মাসের ১০ তারিখে নলহাটির ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নজরুলপল্লী থেকে অপহৃত হয় দ্বাদশ শ্রেণির এক ছাত্রী৷ বাড়ি থেকে বেরিয়ে টিউশন পড়তে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে৷ মেয়েটির বাড়ি থেকে চারজনের নামে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল স্থানীয় থানায়৷ এদের মধ্যে দুজন এলাকারই অরিন্দম লেট ও জগন্নাথ পাণ্ডে৷ কিন্তু পরিবারের লোকজনের অভিযোগ ঘটনার পর একমাস কেটে গেলেও পুলিশ কোনও পদক্ষেপ নেয়নি স্রেফ আর স্রেফ গাফিলতির জন্য৷
সেজন্যই বৃহস্পতিবার দুপুরে অপহৃতা ছাত্রীর বাড়ির লোকজন, তৃণমূলের কয়েক জন সদস্য এক্রামূল হকের সঙ্গে নলহাটি থানায় বিক্ষোভ দেখায়৷ অবিলম্বে পুলিশের গাফিলতির বিরুদ্ধে প্রশাসনের কিছু পদক্ষেপ নেওয়া উচিত, এই মর্মে ডেপুটেশনও দেয় তারা৷ ওসি-র সঙ্গে কথা বলার সময় বেশ উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলেন এক্রামূল, কথা বলার সময় কয়েকবার বেঞ্চও চাপড়ায় সে৷ সব মিলিয়ে পরিস্থিতি বেশ জটিল হয়ে ওঠে৷
অবশেষে ঘণ্টাদুয়েক পর পুলিশ যত দ্রুত সম্ভব পুরো ঘটনার তদন্ত করবে বলে আশ্বাস দিলে বিক্ষোভ তুলে নেয় তারা৷

Advertisement ---
---
-----