সময়টা বেশ ভাল যাচ্ছে পেপ গুয়ার্দিওলা৷ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বুধবার সিএসকেএ মস্কোকে ৩-১ গোল হারিয়ে দিল বায়ার্ন৷ জার্মানির ক্লাবটি ইউরোপের এই টুর্নামেন্টে এই নিয়ে টানা দশটা ম্যাচে জয় পেল৷ গত বছর থেকে এখনও পর্যন্ত চ্যাম্পিয়ন্স লিগে  অপরাজিত জার্মান দলটি৷ এ মরশুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পাঁচটি ম্যাচ খেলেছে বায়ার্ন৷ সবক’টিতেই জিতে এইমুহূর্তে গ্রুপ ‘ডি’-তে শীর্ষে রয়েছে তারা৷ মস্কোতে প্রচণ্ড তুষারপাতের মধ্যেই এরিনা খিমকি স্টেডিয়ামে খেলতে নেমেছিলেন আর্জেন রবেন, থমাস মুলাররা৷ রাশিয়ার রাজধানীতে প্রবল ঠাণ্ডার মতো প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও সাবলীল গুয়ার্দওলার ছেলেরা৷ অ্যাওয়ে ম্যাচে এটা বায়ার্নের ষষ্ঠ জয়৷ এদিন কাফ মাসলে চোটের জন্য ছিলেন না বায়ার্ন স্ট্রাইকার মারিও মান্ডজুকিক৷ সেজন্যই মাঝমাঠ থেকে তুলে এনে প্রথম একাদশে গোটজেকে স্ট্রাইকারে খেলান বায়ার্ন কোচ গুয়ার্দিওয়ালা৷ ম্যাচের ১৭ মিনিটেই প্রথম গোল করে জার্মানির দলটিকে এগিয়ে দিলেন আর্জেন রবেন৷ ম্যাচের ২৮ মিনিটেই ফিলিপ লামকে তুলে থিয়াগোকে নামান বায়ার্ন কোচ৷ প্রথমার্ধে ১-০ এগিয়ে থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে আরও আক্রমণ বাড়ায় আর্জেন রবেনরা৷ ম্যাচের ৫৬ মিনিটে ফের জার্মানির দলটির হয়ে গোল করে দলের ব্যবধান বাড়ান মারিও গোটজে৷ ম্যাচের ফল ২-০ হয়ে যাওয়ার পর ৬১ মিনিটে নিজেদের বক্সে সিএসকেএ ডিফেন্ডার দান্তে হ্যান্ডবল করায় পেনাল্টি পায় মস্কোর দলটি৷ পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান কমান কেইসুকে হন্ডা৷ তবে এই গোল উদ্বুদ্ধ করতে পারেনি লিওনিড স্লাটস্কির ছেলেদের৷ এর চার মিনিটের মধ্যেই বায়ার্ন পেনাল্টি পায়৷ সেই পেনাল্টি থেকে গোল করে দলের ব্যবধান বাড়ান থমাস মুলার৷ শেষ পর্যন্ত ম্যাচ শেষ হয় ৩-১ গোলেই৷ ম্যাচ জিতে উঠে গুয়ার্দিওয়ালা মনে করছেন, আর এক পয়েন্ট পেলেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পরের রাউন্ডে যাওয়া পাকা হয়ে যাবে তাঁদের৷

----
--