তৃণমূল নেতাদের নির্দেশেই অপসারণ: অপসারিত উপাচার্য

পুরুলিয়া: স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের নির্দেশেই এই অপসারণ। মঙ্গলবার এমনটাই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন অপসারিত উপাচার্য শমিতা মান্না। প্রায় আড়াই বছর ধরে সিধো-কানোহ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসাবে দায়িত্বে ছিলেন শমিতা মান্না। এমনকি, গত অগস্টেই শমিতাদেবীর মেয়াদ ছ’মাস বাড়ানোর নির্দেশ বেরিয়ে গিয়েছিল। সোমবার থেকে তাঁর সেই বাড়তি কার্যকাল শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শনিবার শিক্ষা দফতরের নতুন নির্দেশিকায় জানিয়ে দেওয়া হয়, শমিতাদেবীর মেয়াদ বাড়ানোর নির্দেশ খারিজ করা হচ্ছে। সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অবশেষে মুখ খুললেন শমিতাদেবী। তাঁর অভিযোগ, শাসকদলের বেশকিছু নেতা এবং শিক্ষক সংগঠনের সদস্যরা তাকে তাদের মতো করে চলার কথা বলেছিলেন। এমনকি, তাদের কথা মতো না চললে তাঁর পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। তাদের অঙ্গুলিহেলনেই এই ঘটনা বলে অভিযোগ অপসারিত উপাচার্যের। এই বিষয়ে বারবার দেখা করার জন্য আবেদন জানানো হলেও শিক্ষামন্ত্রী দেখা করেননি বলে অভিযোগ। হঠাৎ করে সরকারের এই সিদ্ধান্তে তিনি যথেষ্ট হতাশ বলে মন্তব্য করেন শমিতাদেবী।

Advertisement ---
-----