পাকসেনার ফের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন, উত্তেজনা কাশ্মীর সীমান্তে

আলোচনা-সমালোচনা-রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ৷ কোনও কিছুতেই বন্ধ হচ্ছে না পাকিস্তানের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন। শুক্রবার ফের সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করে গুলি চালাল পাক সেনা। এদিন জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে আরনিয়া এবং রামগড় সেক্টরে ১৬টি ভারতীয় সেনা ছাউনি লক্ষ্য করে গুলি চালায় তারা। সূত্রের খবর, পাক সেনাবাহিনী মর্টার বোমা, রকেট এবং স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রের সাহায্যে আক্রমণ চালায়। সেনা ছাউনির পাশাপাশি সাধারণ মানুষদের উদ্দেশ্যেও গুলি চালায় পাকিস্তান। ভারতীয় সেনাবাহিনীও এর যোগ্য প্রত্যুত্তর দিয়েছে। সীমান্তে প্রতিদিনের এই গুলি চালনার ঘটনায় শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন সীমান্তবর্তী এলাকার বাসিন্দারা। বহু মানুষ বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র চলে গিয়েছে। বৃহস্পতিবারও সাম্বা জেলায় মর্টার বোমা ও রকেটের সাহায্যে আক্রমণ করে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। চলতিবছর দেড়শতাধিকবার যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান।

বারবার পাকিস্তান যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করলেও প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের সঙ্গে কয়েকদিন আগে বৈঠক করেন। তবে, কথা দিয়ে কথা না রাখায় শরিফের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেন মনমোহন। গতকাল চিন থেকে ভারতে ফেরার বিশেষ বিমানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মনমোহন জানান, তিনি নওয়াজ শরিফের ভূমিকায় অখুশি৷ নিউ ইয়র্কের বৈঠকে সীমান্তে শান্তি রক্ষা নিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী তাঁকে আশ্বাস দিলেও, পরিস্থিতির কোনওরকম বদল হয়নি৷ যদিও তাঁর আশা, দেরীতে হলেও পাক প্রধানমন্ত্রী বুঝবেন, যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন দুদেশের পক্ষেই ক্ষতিকারক৷

মঙ্গলবার সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে গিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে।

Advertisement ---
---
-----