বঙ্গোপসাগরে এমএইচ ৩৭০! দ্বিধায় মালয়েশিয়া

কুয়ালা লামপুর: বঙ্গোপসাগরে নিখোঁজ মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের হদিস মেলা নিয়ে দোলাচলে সে দেশের প্রশাসন৷ বঙ্গোপসাগরে এমএইচ ৩৭০-র ধ্বংসাবশেষ মেলার সম্ভাবনা বুধবার খারিজ করে দিয়েছিল মালয়েশিয়া সরকার৷ কিন্তু শুক্রবার মালয়েশিয়ার কার্যনির্বাহী পরিবহণমন্ত্রী হিশামুদ্দিন হুসেন বলেন, বঙ্গোপসাগরের ওই অঞ্চলে জাহাজ তল্লাসি না চালালে, এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যাবে না৷ পরক্ষণেই নিজের মন্তব্য থেকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে তাঁর প্রশ্ন, ‘বঙ্গোপসাগরে জাহাজ পাঠিয়ে যদি সাফল্য না মেলে, তবে তার জন্য কে দায়ী হবেন?’
অস্ট্রেলিয় সংস্থা জিও রিজোন্যান্সের দেওয়া সূত্র যাচাই করতে ইতিমধ্যেই বঙ্গোপসাগরে পৌঁছেছে বাংলাদেশের একটি রণতরী৷ তবে সেখানে কিছু মিলবে না বলেই দাবি করেছেন দক্ষিণ ভারত মহাসাগরে তল্লাশি অভিযানের নেতৃত্বে থাকা অজি এয়ার চিফ মার্শাল আঙ্গাস হিউস্টন৷ এদিন তিনি বলেন, ‘দক্ষিণ ভারত মহাসাগরের এই অঞ্চল থেকেই মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের এমএইচ৩৭০ বিমানের ধ্বংসাবশেষ মিলবে৷
এদিকে বিমান তল্লাসির পরবর্তী ধাপ নিয়ে ঠিক করতে আগামী সপ্তাহে ক্যানবেরায় বৈঠকে বসতে চলেছেন অস্ট্রেলিয়া, চিন ও মালয়েশিয়ার প্রতিনিধিরা৷ এদিন একথা জানিয়ে মালয়েশিয়ার কার্যনির্বাহী পরিবহণমন্ত্রী হিশামুদ্দিন হুসেন জানান, যতই সময় লাগুক তাঁরা নিখোঁজ বিমানের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধারের পরই তল্লাসি থামবে৷

Advertisement
----
-----