মায়ানমারে সন্ত্রাসবাদ বিরোধিতায় নামছেন মনমোহন

নয়াদিল্লি: আন্তর্জাতিক মঞ্চ থেকে সন্ত্রাসবাদেরর বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলতে মায়ানমার গেলেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং৷যাওয়ার আগে ইঙ্গিত দিয়ে গেলেন, আন্তর্জাতিক উগ্রপন্থার বিরুদ্ধে মঞ্চে সামিল সব দেশের প্রতিনিধিদের উগ্রপন্থার বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বাণ জানাবেন তিনি৷মঙ্গলবার থেকে মায়ানমারের নাই হাই তা-তে শুরু হচ্ছে দু’দিনের বিম্বস্টেক সামিট৷ওই আন্তর্জাতিক সম্মেলনে যোগ দেবে মোট সাতটি দেশ৷রয়েছে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, মায়ানমার, নেপাল, ভুটান ও ভারত৷ দেশের প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন এটিই ড. মোনমোহন সিংয়ের শেষ বিদেশ সফর বলে মনে করা হচ্ছে৷কারণ, সামনেই লোকসভা নির্বাচন৷

এদিন দিল্লিতে মায়ানমারের উদ্দেশ্যে পারি দেওয়ার আগে ড. মনেমাহন সিং বলেন, সম্মেলনে আন্তর্জাতিক মাদক পাচার, উগ্রপন্থা, আঞ্চলিকতাবাদের বিরুদ্ধে জোড়দার আওয়াজ তুলে ধরব৷সবাইকে আহ্বাণ জানাব যাতে ,সবাই একসঙ্গে মিলে ওইসব মারণ ব্যাধির বিরুদ্ধে লড়াইকে আরও বিরাট করে তুলতে পারে৷পাশাপাশি দেশের প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেছেন, সুরক্ষার চ্যালেঞ্জ দু’রকমভাবে আসে৷মানুষ নিজেই নিজের ধ্বংসের কারণ হয়ে ওঠে কখনও কখনও৷আবার প্রাকৃতিক বিপর্যয়েও সবকিছু ধ্বংস হয়ে যায়৷তাই ওই দু’রকম প্রতিকুলতাকেই আটকাতে হবে সবাই মিলে৷এদিকে, নেপাল, ভুটান, মায়ানমার সহ ওই গোটা এলাকাকেই উগ্রপন্থিদের নিরাপদ আশ্রয়

বলে জানে দুনিয়া৷ভারতে সন্ত্রাসবাদি কার্যকলাপ চালিয়ে খুব সহজেই জঙ্গিরা আশ্রয় নেয় ওইসব দেশগুলোতে৷তাই সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলার একটি বড়সড় মঞ্চ মনমোহন সিং পেয়ে গেলেন বলে মনে করছে পর্যবেক্ষক মহল৷

- Advertisement -

দু’বছর আগে ওই সম্মেলনের আসর শেষবার বসেছিল দিল্লিতে৷

Advertisement
-----