শ্রীদেবীর মৃত্যু পরিকল্পিত খুন, দাবি করলেন প্রাক্তন পুলিশ আধিকারিক

নয়াদিল্লি: শ্রীদেবীর মৃত্যু নিয়ে এবার প্রশ্ন তুললেন দিল্লি পুলিশের অবসরপ্রাপ্ত এসিপি বেদ ভূষণ। তাঁর মতে শ্রীদেবীর মৃত্যু পরিকল্পিত খুন৷

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বেদ ভূষণ দুবাই পুলিশের ময়নাতদন্তের রিপোর্টটি তুলে ধরেন৷ এই রিপোর্ট যে তাঁকে সন্তুষ্ট করেনি, তাও উল্লেখ করেন তিনি৷ তাঁর দাবি যে কাউকেই বাথটবের জলে জোর করে ফেলে দেওয়া যায়৷ জলে ডুবিয়ে রেখে তার নিঃশ্বাস বন্ধ করে তাকে মেরে ফেলা সম্ভব৷ এই ধরণের খুনে কোনও প্রমাণ থাকেনা৷ ফলে খুব সহজেই একে দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু বলে প্রমাণ করা যায়৷ শ্রীদেবীর ক্ষেত্রেও ঠিক তাই হয়েছে বলে ধারণা প্রাক্তন এসিপির৷

দুবাই পুলিশের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট উল্লেখ করে বেদ জানান, দুবাইয়ের আইন ব্যবস্থার প্রতি তাঁর সম্মান রয়েছে। কিন্তু তারা শ্রীদেবীর ময়নাতদন্তের যে রিপোর্ট জমা দিয়েছেন, তা ভারতীয় পুলিশকে সন্তুষ্ট করতে পারেনি৷ এখনও অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া বাকি রয়েছে। তিনি জানান, আমরা দুবাই যাব এবং সবকিছু ফের তদন্ত করব।

- Advertisement -

বেদ ভূষণ আরও জানিয়েছেন, শ্রীদেবীর মৃত্যুর তদন্ত করার জন্য তিনি দুবাইয়ের জুমেইরাহ এমিরেটস টাওয়ার্সে গিয়েছিলেন। কিন্তু হোটেলের ওই ঘরে তাকে ঢুকতে দেয়া হয়নি। তাই তিনি পাশের ঘর থেকে সম্পূর্ণ ঘটনাটি বোঝার চেষ্টা করেছেন। এবং সিদ্ধান্তে এসেছেন যে, শ্রীদেবীর মৃত্যু পরিকল্পিত।

এর আগে, শ্রীদেবীর মৃত্যু নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন আইনজীবী সুনীল সিং। তিনি প্রশ্ন তুলেছিলেন, ৫.৭ ফুট উচ্চতাবিশিষ্ট একজন কী করে ৫.১ লম্বা বাথটাবে ডুবে যাবেন!

Advertisement ---
---
-----