বোর্ড প্রেসিডেন্ট পদে শ্রীনির প্রত্যাবর্তনে আপাতত স্থগিতাদেশ সুপ্রিম কোর্টের৷ আইপিএল স্পট ফিক্সিং কাণ্ডের তদন্তের জন্য বিসিসিআই-এর তরফে যে নতুন একটি বিশেষ কমিটি তৈরি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল, সোমবার তা খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট৷ তার বদলে পঞ্জাব ও হরিয়ানার প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি মুকুল মুদগলের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি নতুন তদন্ত কমিটি গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত৷ মঙ্গলবার এই নতুন প্যানেলের বিষয় চূড়ান্ত রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট৷
সোমবার বিচারপতি এ কে পট্টনায়ক এবং জে এস কেহারের বেঞ্চ আইপিএল স্পট ফিক্সিং কাণ্ডে তিন সদস্যের একটি নতুন তদন্ত কমিটি তৈরির প্রস্তাব দেয়৷ যাঁদের মধ্যে রয়েছেন, সিনিয়র অ্যাডভোকেট জেনারেল ও অ্যাডিশনাল সলিসিটর জেনারেল নাগেশ্বর রাও এবং অসম ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য নিলয় দত্ত৷ এই নতুন তদন্ত কমিটি স্বাধীন ভাবে তদন্তের কাজ চালিয়ে নিজের রিপোর্ট পেশ করবে সুপ্রিম কোর্টের কাছে৷ এদিন বিচারপতি এ কে পট্টনায়ক আরও জানান, ‘মুম্বই পুলিশ নিজেদের মতো করে তদন্তের কাজ চালিয়ে যাক৷ সেই সঙ্গে এই নতুন তদন্ত কমিটি স্বাধীন ভাবে তদন্ত চালিয়ে রিপোর্ট পেশ করুক সুপ্রিম কোর্টের কাছে৷’ শ্রীনির বিসিসিআই-এর পক্ষ থেকে একটা ‘স্পেশ্যাল পারপাস কমিটি’ (এসপিসি)গঠনের দাবি করলেও, এদিন তা খারিজ করে দেওয়া হয় সু্প্রিম কোর্টের তরফে৷ ফলে এজিএম শেষ হওয়ার পর, এক সপ্তাহ কেটে গেলেও, স্বস্তিতে নেই শ্রীনি শিবির৷ এখন যা পরিস্থিতি, তাতে শ্রীনিবাসনের বোর্ড প্রেসিডেন্ট পদে ফেরাটা এখনও ঘোরতর অনিশ্চিত ৷

----
--