শ্লীলতাহানির জের: কড়া হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন

কলকাতা: সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় কার্যত মুখ পড়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনামে। সেদিকে তাকিয়ে এবার নিয়ম শৃঙ্খলা জোরদার করার পথে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷‌ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব কিছু নিয়মকানুন আছে৷‌ কিন্তু সেগুলো খুব কড়াভাবে বাস্তবায়িত করা হয় না৷‌ এবার থেকে তা করা হবে এবং যে বা যারা মানবে না তাদের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবেন৷‌
‌ শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা কীভাবে আরও জোরদার করা যায় তা নিয়ে শিক্ষক, আধিকারিক, কর্মী ও ছাত্র সংগঠনের সঙ্গে বৈঠক করেন উপাচার্য অভিজিৎ চক্রবর্তী৷‌ বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর, সাম্প্রতিক ঘটনা ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ে চত্বরে কিছু অসামাজিক কাজকর্মকে কীভাবে প্রতিহত করা হবে তা নিয়েও আলোচনা হয়৷‌ কীভাবে এই ধরনের ঘটনাকে এড়ানো বা আটকানো সম্ভব, তা নিয়ে নানা মত উঠে আসে৷‌ তবে একটি বিষয়ে সবাই একমত হন যে, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব কিছু নিয়মকানুন আছে৷‌ সবাই জানে৷‌ কিন্তু মানা হয় না৷‌ সেগুলো আবার নতুন করে সবাইকে, বিশেষ করে ছাত্র-ছাত্রীদের জানানো দরকার৷‌ এই নিয়ম না মানলে কি ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে তা-ও জানানো হবে৷‌ যেমন হস্টেলের কিছু নিয়ম আছে৷‌ অনেক সময় তা মানা হয় না৷‌ ক্যাম্পাসের ভেতর মাদক সেবন নিষিদ্ধ৷‌ এটাও মানা হয় না৷‌ এবার থেকে না মানলে কি হবে সেটা পড়ুয়াদের আবার জানানো হবে৷‌ ছাত্র, শিক্ষক– প্রত্যেকেরই পরিচয়পত্র আছে৷‌ সেটা রাখতে বলা হবে৷‌ সবাইকে নিয়ে একটা টাস্কফোর্স গঠন করার প্রস্তাবও এসেছে৷‌ এ প্রসঙ্গে উপাচার্য বলেন, ক্যাম্পাসের শৃঙ্খলা বাড়ানো নিয়ে বৈঠক হয়েছে৷‌ কিন্তু কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি৷‌ আরও কয়েকটি বৈঠক হবে৷‌ ১৬ সেপ্টেম্বরের ই সি বৈঠকে বিষয়টি তোলা হবে বলেও জানান তিনি৷‌ এদিকে এদিনও আই সি সি-র পরিবর্তে শ্লীলতাহানির ঘটনায় নতুন তদন্ত কমিটি গঠন করে নিরপেক্ষ তদন্তের দাবিতে অবস্থান-বিক্ষোভ জারি রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের একটা অংশ৷‌

Advertisement
---