সংখ্যালঘুদের দেশে পাড়ি দিচ্ছেন উমা

কুমোরটুলির থেকে বিভিন্ন দেশে প্রতিমা যাওয়াটা এখন নতুন নয়। পুজো আসার কয়েক মাস আগে থেকেই কুমোরপাড়ার স্যাঁতস্যাঁতে গলি ছেড়ে চিন্ময়ী মা যান জাপান, লন্ডন সহ একাধিক দেশে। এই বছর সেই দেশগুলির মধ্যে নব সংযোজন দারেসালেম। দীর্ঘ কয়েকবছর পরে মৃৎশিল্পী প্রশান্ত পালের স্টুডিও ছেড়ে আবার কোনও মুসলিম রাষ্ট্রে মৃন্ময়ী মা যাচ্ছেন চিন্ময়ী রূপে।
শিল্পী প্রশান্ত পাল জানান, ২০১০ সালে একটি প্রতিমা প্রথম দারেসালেম গিয়েছিল। এরপর দীর্ঘ তিন বছর বন্ধ ছিল প্রতিমা যাওয়া।
এই প্রসঙ্গে প্রশান্তবাবু আরও বলেন, মুসলিম রাষ্ট্রে প্রতিমা পাঠানো বিভিন্ন সমস্যার। নিয়মশৃঙ্খলাও প্রচুর থাকে। সেই কারণে কার্যত মুসলিম রাষ্ট্রে প্রতিমা প্রতি বছর যাওয়াটা সমস্যার। তবে কয়েকবছর পরে ফের নিজের প্রতিভাকে তুলে ধরতে পেরে খুশি মৃৎশিল্পী প্রশান্ত পাল।
প্রশান্ত পাল জানান, সম্পূর্ণ ফাইবারের তৈরি প্রতিমাটি তৈরি করতে মাসখানেক সময় লেগেছে তাঁর। সময় না থাকায় খুব দ্রুততার সঙ্গে তৈরি করতে হয়েছে প্রতিমাটি। তবে উচ্চতা এবং ওজনে তুলনামূলক অনেকটাই কম এই প্রতিমা বলে জানান প্রশান্ত পাল। বৃহস্পতিবারই বিমানে দারেসালেমের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিচ্ছেন মা উমা।

----
-----