দিল্লি রওনা হলেন লক্ষ্মীরা৷ ছবি সৌজন্যেঃ ফেসবুক

বৃষ্টিতে ভেস্তে গিয়েছে সিএবি (স্নেহাংশু আচার্য) চ্যালেঞ্জার ট্রফি৷ রঞ্জির মরসুম শুরু হওয়ার আগে অন্যান্য রাজ্যের ক্রিকেটাররা যখন পুরোদমে অনুশীলন করছে, সেখানে বাংলা দলকে ইন্ডোরেই বেশির ভাগ সময় প্র্যাকটিস করে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে৷ তাই সিএবি কর্তাদের প্রচেষ্টায় হরিয়ানার বিরুদ্ধে তিনটি প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে বাংলা দল৷ ওই ম্যাচ খেলতে সোমবারই দিল্লি হয়ে রোহতাকের উদ্দেশ্যে রওনা হলেন লক্ষ্মীরা৷ যা শোনা যাচ্ছে, তাতে হরিয়ানা ছাড়া দিল্লির বিরুদ্ধেও প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলার সুযোগ পেতে পারে বাংলা৷ যেখানে দিল্লির হয়ে খেলার সম্ভাবনা বর্তমানে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া দুই ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সেহওয়াগ এবং গম্ভীরেরও৷

এদিকে, এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে ঘোষণা না হলেও, গোটা মরসুমের জন্য অধিনায়ক হিসেবে লক্ষ্মীকেই বেছে নিতে চলেছেন বাংলার নির্বাচকমণ্ডলী৷ হরিয়ানার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকবছর পর আবার বাংলা দলে সুযোগ পেয়েছেন পেসার শিবশঙ্কর পাল৷ ‘ম্যাকো’-কে ঘিরে তাই উৎসাহ অনেকটাই বেশি৷ পুজোর সময় ম্যাচগুলি পড়ায়, এবছর দুর্গোৎসব আর কলকাতায় উপভোগ করতে পারছেন না লক্ষ্মীরা, তাতে স্বভাবতই হতাশ বাংলা অধিনায়ক৷ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে ‘মিসিং দুর্গা পূজা’ বলে টিম মেটের সঙ্গে ছবিও পোস্ট করেছেন বাংলা অধিনায়ক লক্ষ্মী৷ ঋদ্ধিমান, অনুষ্টুপ এবং ইরেশ সাক্সেনা বাদে প্রায় গোটা দলকেই হরিয়ানার বিরুদ্ধে পাচ্ছে বাংলা৷ হরিয়ানার বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের সিরিজের জন্য নির্বাচিত পুরো বাংলা দল হল এইরকমঃ
লক্ষ্মীরতন শুক্ল (অধিনায়ক), অরিন্দম দাস, রোহন বন্দ্যোপাধ্যায়, পার্থসারথি ভট্টাচার্য, সুদীপ চট্টোপাধ্যায়, সন্দীপন দাস, শুভময় দাস, অভিষেক ঝুনঝুন ওয়ালা, শ্রীবৎস গোস্বামী, অনুপ সমাদ্দার, জীতেন্দ্র সাহু, সৌরাশীষ লাহিড়ী, অর্নব নন্দী, শিবশঙ্কর পাল, সায়নশেখর ভট্টাচার্য, সৌরভ মন্ডল, মনোজিৎ ঘোষ, দীপ চট্টোপাধ্যায়, ত্রিনান দত্ত৷

----
--