নৌবাহিনীতে যুক্ত হচ্ছে শতাধিক টর্পেডো, শিলমোহর মোদী সরকারের

নয়াদিল্লি: পুলওয়ামা হামলার পর থেকেই উত্তপ্ত পরিস্থিতি। ভারতীয় সেনাকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়ার কথা উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। যুদ্ধের আতঙ্কে বারবার বৈঠকে বসছে পাক সেনা। এই পরিস্থিতিতে শক্তি বাড়াল ভারতের নৌবাহিনী।

নৌসেনায় ১০০টি টর্পেডো যুক্ত করতে অনুমোদন দিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। মুম্বইয়ের ম্যাজাগন ডকইয়ার্ডে নৌসেনার ছ’টো স্করপিন ক্লাস সাবমেরিনে যোগ দেবে এই টর্পেডোগুলি। কয়েকদিনের মধ্যেই সাবমেরিনের সঙ্গে যুক্ত হবে এগুলি।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে এই টর্পেডো মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

- Advertisement -

ফ্রান্সের স্করপিন ক্লাস সাবমেরিনগুলি তৈরি হয়েছে ভারতের ম্যাজাগন ডকইয়ার্ডে। এগুলির নামকরণ হয়েছে ‘কালভরি ক্লাস।’ প্রথম সাবমেরিনটির নাম আইএনএস কালভরি। সেটি ইতিমধ্যেই নৌবাহিনীতে যুক্ত হয়েছে।

অন্যান্য যুদ্ধজাহাজের জন্যও টর্পেডো আনার চিন্তাভাবনা চলছে। টেন্ডার জমা দিতে চলেছে ফ্রান্স, সুইডেন, রাশিয়া ও জার্মানি। এর আগে এই প্রজেক্টের জন্য ইতালির ব্ল্যাকশার্ক টর্পেডো বেছে নেওয়া হয়েছিল।

এদিকে, Aero India চলাকালীনই ভারতের ঘরে এল অ্যাডভান্সড লাইট হেলিকপ্টার MK III. শুক্রবার ভারতীয় সেনার তরফে এই সংশ্লিষ্ট নথি গ্রহণ করেছেন আর্মি অ্যাভিয়েশনের ডিজি লেফট্যানেন্ট জেনারেল কাধনওয়াল কুমার।

সাড়ে ৫টনের ALH Mk III হেলিকপ্টারে রয়েছে শক্তি 1H1 ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিন নিয়ে হেলিকপ্টার উড়তে পারে ২০,০০০ ফুট উচ্চতায়। অধিক উচ্চতার জায়গায় জিনিসপত্র এবং সেনা জওয়ানদের বহন করে নিয়ে যাওয়ার জন্যই মূলত এই হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে।

দ্রুত কোনও জায়গায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য ব্যবহার করা হবে এই হেলিকপ্টার। একসঙ্গে ১৪ জন জওয়ানকে নিয়ে যেতে পারবে এই হেলিকপ্টার। অধিক উচ্চতায় কোনও অপারেশন চালানোর জন্য এই হেলিকপ্টার তৈরি করা হয়েছে।