কাবুল: বিমান হানায় কমপক্ষে ১১জন আইসিস জঙ্গিকে নিকেশ করল আফগান বায়ুসেনা৷ রাজধানী কাবুল থেকে ১৫০ কিলোমিটারের পূর্বে অবস্থিত নানগারহার প্রদেশের আচিন জেলায় মঙ্গলবার এই এয়ার স্ট্রাইক সংগঠিত হয়৷ প্রাদেশিক গভর্নরের মুখপাত্র আতাউল্লাহ খগায়ানি জানিয়েছেন সংঘর্ষে ১১ জন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে৷

মঙ্গলবার আফগানিস্তানের সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই তথ্য সামনে এসেছে৷ বিমান হামলায় গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে জঙ্গিদের গোপন আস্তানা, উদ্ধা্র হয়েছে প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র৷ তবে এই হামলা সম্পর্কে আইসিসের পক্ষ থেকে কোনও বিবৃতি প্রকাশ করা হয়নি৷

Advertisement

প্রসঙ্গত, গত রবিবারই নানগারহার প্রদেশে চিরুণি তল্লাশি ও হামলা চালায় আফগান সেনা৷ বেশ কয়েকজন আইসিস জঙ্গির নিকেশ হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে৷ একটি মাদক তৈরির কারখানাও গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে সেনাসূত্রে খবর৷

এদিকে, আফগানিস্তানে বর্তমানে ১০ হাজারের বেশি আইএস জঙ্গি রয়েছে, এই মর্মে দিন কয়েকআগেই সতর্ক করেছিলেন আফগানিস্তান বিষয়ক রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের বিশেষ দূত জামির কাবুলভ। তাঁর দাবি ছিল, ইরাক ও সিরিয়ায় একের পর এক ঘাঁটি ধ্বংস হয়ে যাওয়া এবং জঙ্গিদের পরাজয়ের পর আফগানিস্তানে আইএসের উপস্থিতি বাড়ছে।

রাশিয়ার সংবাদ সংস্থা স্পুৎনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই তথ্য দেন কাবুলভ। তিনি বলেন, তাজিকিস্তান ও তুর্কমেনিস্তান সীমান্তবর্তী আফগানিস্তানের জাওজান ও সারে পোল প্রদেশে আইএসের উপস্থিতি রয়েছে৷
রুশ প্রেসিডেন্টের এই বিশেষ প্রতিনিধি ওই বলেছিলেন, জঙ্গি গোষ্ঠীগুলির পিছনে বিদেশী পৃষ্ঠপোষকতা রয়েছে। এবং আফগানিস্তানে তারা বেশ কয়েকটি দেশ থেকে অস্ত্র পাচ্ছে। নানা সময় এই সব জঙ্গিদের হেলিকপ্টারে করে আফগানিস্তানের বিভিন্ন অঞ্চলে পৌঁছে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে বলেও মন্তব্য করেন কাবুলভ।

----
--