৮৪-র শিখ নিধনে কংগ্রেস-যোগ মেনে নিলেন রাহুলের দলের নেতাই

চন্ডীগড়: কয়েকদিন আগেই শিখ হত্যাকাণ্ডে দলের কেউ জড়িত নয় বলে জোর গলায় জানিয়েছিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ কিন্তু রাহুল গান্ধী ও দলকে অস্বস্তিতে ফেলে ৮৪’র শিখ নিধনে কংগ্রেস যোগের কথা মেনে নিলেন পাঞ্জাবের কংগ্রেসী মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং৷

১৯৮৪র শিখ হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছিল কিছু কংগ্রেস নেতা৷ স্বীকারোক্তি পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের৷ সোমবার তিনি জানান, দলের পাঁচ নেতা সেই গণহত্যায় জড়িত ছিল৷ তাদের নামও উল্লেখ করেন তিনি৷ কিন্তু সেই তালিকা থেকে শিখ গণহত্যায় জড়িত অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত জগদীশ টাইটলারের নাম বাদ রাখেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী৷ এর জেরে অকালি দলের বিরোধীতার মুখেও পড়তে হয় তাঁকে৷

সোমবার পাঞ্জাবের মুখমন্ত্রী বলেন, ‘‘ইন্দিরাজিকে হত্যার পরই শুরু হয় শিখ হত্যা৷ সেই সময় পশ্চিমবঙ্গে ছিলেন রাজীব গান্ধী৷ কিছু কংগ্রেস নেতা ছাড়া এই ঘটনায় দলের কেউ জড়িত ছিল না৷ তারা হলেন সজ্জন কুমার, ধরমদাস শাস্ত্রী, অর্জুন দাস এবং আরও দুই নেতা৷’’

- Advertisement -

শিখ গণহত্যায় অন্যতম অভিযুক্ত জগদীশ টাইটলারের নাম মুখে আনেননি অমরিন্দর সিং৷ যা নিয়ে সোচ্চার হয় শিরোমণি অকালি দল৷ দলের সভাপতি সুখবীর সিং বাদল জানান, মুখ্যমন্ত্রী শিখ সংঘর্ষের অন্যতম প্রধান সাক্ষী৷ সুপ্রিম কোর্টকে চিঠি দিয়ে তাঁর সেটা জানানো উচিত৷ তিনি এদিন পাঁচ জনের নাম নিয়েছেন৷ কিন্তু টাইটলারের প্রতি তিনি নরম মনোভাবাপন্ন৷ তাই ওই নাম উচ্চারণও করেননি তিনি৷

এর আগে টাইটলারকে এই মামলা থেকে ক্লিনচিট দেয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই৷ যদিও সিবিআইয়ের সেই ক্লিনচিটকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা করা হয়েছে৷ প্রসঙ্গত বিদেশ সফরে গিয়ে শিখ সংঘর্ষ নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ ১৯৮৪র সেই গণহত্যাকে দুঃখজনক বলে রাহুল দাবি করেন দলের কেউ এই ঘটনায় জড়িত নয়৷

এরপরই ফের চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে শিখ গণহত্যা, যে সংঘর্ষে দিল্লিতে তিন হাজারের বেশি শিখকে নির্বিচারে হত্যা করা হয়৷ রাহুলের মন্তব্যের পরই শুরু হয় রাজনৈতিক তরজা৷ কংগ্রেস সভাপতির সমালোচনায় সরব হয় অকালি দল৷ জানায়, ১৯৮৪র সংগঠিত শিখ গণহত্যার দায় এভাবে ঝেড়ে ফেলতে পারে না কংগ্রেস৷ রাহুলকে বাঁচাতে পাল্টা আসরে নামে কংগ্রেস৷ তখন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী জানান, অপারেশন ব্লু স্টার ও শিখ গণহত্যার দায় রাহুলের উপর চাপানো ঠিক নয়৷ কারণ রাহুলের বয়স তখন খুবই কম ছিল৷ এই সব ঘটনা সম্পর্কে সে ওয়াকিবহাল ছিল না৷

Advertisement ---
---
-----