প্রায় ৬ কোটি টাকার সোনা-সহ গ্রেফতার ২বিদেশি

মুম্বই: পূর্ব সান্তাক্রুজ এলাকার হোটেল গ্রাণ্ড হায়াতের তিন কর্মীর তৎপরতায় প্রায় ২৩ কেজি সোনা উদ্ধার করল সাহার থানার পুলিশ৷ জানা গিয়েছে, হোটেলে আসা কেনিয়া এয়ারওয়েজের কর্মীদের মধ্যে একজনের ব্যাগে নিষিদ্ধ জিনিস রয়েছে, এই সন্দেহে সোমবার সকাল ৮ টা নাগাদপুলিশের কাছে একটি ফোন আসে৷ ফোনটি পেয়েই হোটেলে পৌঁছে যায় পুলিশ৷ কেনিয়া এয়ারওয়েজ কর্মী আবদুল্লা আলির(২৯)ব্যাগ তল্লাশি করে ওই বিপুল পরিমাণের সোনা উদ্ধার করেন তারা৷ অভিযুক্ত কর্মী আবদুল্লা ও কেনিয়ার বাসিন্দা আলি হুসেন ইব্রাহিমকে(২৬) গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত কর্মী আবদুল্লানাইরোবি থেকে কেকিউ-২১০ বিমানে করে মুম্বইতে আসে৷ তার কাছ থেকে সোনা নিতে হোটেলে এসেছিল ধৃত আলি হুসেন৷ তাকে শুল্ক বিভাগের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে৷ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে৷

সূত্রের খবর, ধৃতের কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া সোনার মধ্যে ১৫ কেজির ১২৮ টি সোনার বার ও ৭.৮ কেজির ২৮ টি অশোধিত সোনার বার ছিল৷ জানা গিয়েছে, চারটি নাইলনের নিক্যাপ ও ২৬ টি পকেটসহ একটি বেল্টে সোনার বারগুলি লোকানো ছিল৷ উদ্ধার হওয়া বিপুল পরিমাণ সোনার বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ৬.৩৭ কোটি টাকা৷

- Advertisement DFP -

পুলিশকে ঠিক সময়ে খবর দেওয়ার জন্য হোটেল কর্মীদের বাহবা দিয়েছেন সাহার থানার পুলিশ৷ তবে বিষয়টি তদন্তের অধীনে থাকায় হোটেল কর্তৃপক্ষ কোন মন্তব্য করেনি৷

গত ৬ ফেব্রুয়ারি সোনা পাচারের অভিযোগে মুম্বইয়ের শুল্ক বিভাগ এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছিল৷ আশ্রিত নারুলা নামের ওই ব্যক্তি হংকং থেকে প্রায় ৬৫ লাখ টাকার সোনা নিয়ে এসেছিল৷ কিন্তু গোপনসূত্রে খবর পেয়ে বিমানবন্দরেই তাকে পাকড়াও করে নেওয়া হয়৷

Advertisement
----
-----