ভূস্বর্গে এই প্রথম মহিলা পরিচালিত ক্যাফে, দেখুন ভিডিও

শ্রীনগর: উপত্যকার বরফও গলে উদ্যোগের বার্তা দিয়ে৷ যা করার সাহস দেখিয়েছেন কাশ্মীরি যুবতী মেহভিস মেহরাজ জারগার৷ একার চেষ্টায় কাশ্মীরে আস্ত একটা ক্যাফে খুলে ফেলেছেন মেহভিস৷ উপত্যকায় এই প্রথম মহিলা পরিচালিত ক্যাফে যা নির্ভেজাল আড্ডা আর এক কাপ শান্তির কফির আহ্বান জানায় উপত্যকাবাসীকে৷

ক্যানসারে মৃত্যু হয় বাবার৷ মাত্র ৭ বছর বয়সে বাবাকে হারান মেহভিস৷ ওকালতি নিয়ে পাশ করলেও উত্তপ্ত উপত্যকায় ক্যাফে তৈরির স্বপ্ন দেখতেন তিনি৷ স্বপ্ন সত্যি হয় গত বছরেই৷ শ্রীনগরের বেমিনা এলাকার সরকারি কলেজের ঠিক বিপরীতে মেহভিসের ক্যাফে নাম- মেনু ক্যাফে৷ মা ও দুই বোনের সমর্থন পেয়ে ঋণ নিয়ে এই ক্যাফে তৈরি করেন মেহভিস৷ মেহভিসের মতন তাঁর বাকি ২ বোনও উচ্চ শিক্ষিত৷ বাবার মৃত্যুর পর অনেক প্রতিকূলতা কাটিয়ে মেয়েদের শিক্ষিত করেন মেহভিসের মা৷

পড়ুন: উপত্যকায় শহিদ মেজর সহ চার জওয়ান, খতম চার জঙ্গি

- Advertisement -

মেহভিসে জানাচ্ছেন, নিজেদের অবস্থা দেখেই কিছু করার সিদ্ধান্ত, উচ্চ শিক্ষিত হয়েই তাই ক্যাফে তৈরি করেন৷ এই ক্যাফেই গোটা পরিবারের একমাত্র আয়ের সংস্থান৷ বলা যায়, অজানা স্বপ্ন পূরণের জায়গা৷ মেহভিস আপাতত কাশ্মীরের ইউথ আইকন৷ তাঁকে দেখেই নিজের পায়ে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখেছেন বিভিন্ন বয়সের মহিলা৷ কার্ফিউ, সেনার বুট, সন্ত্রাস হামলা যে রাজ্যেবাসীর জীবনের অঙ্গ, সেখানে মেহভিসের মেনু ক্যাফে সেই আশার বার্তা দেয়, যা কোথাও অবদমিত৷ কাশ্মীরে থেকেই নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে ক্যাফে সামলাচ্ছেন মেহভিস৷ যা তরুণ প্রজন্মকে কাশ্মীরে সন্ত্রাস না ছড়ানোর বার্তা দিচ্ছে বলে মনে করছেন মেহভিসের মা৷

মেহভিসের পথ ধরেই, মহিলারা নিজেদের উদ্যোগে তৈরি করছেন বুটিক, পার্লারের মত নানা স্টার্টআপ৷ তথ্য-প্রযুক্তি খাতেও এগিয়ে চলেছেন মহিলারা৷ পড়াশুনা করে কাশ্মীরের বাইরে জীবিকার ধারা এভাবেই বদলাবে বলে মনে করছেন মেহভিসও৷

Advertisement ---
---
-----