২৬ জন ভারতীয় মৎস্যজীবীকে মুক্ত করল পাকিস্তান

করাচি: স্বাধীনতা দিবসের আগে ২৬ জন ভারতীয় মৎস্যজীবীকে মুক্তি দিল পাকিস্তান। অন্যায় ভাবে পাকিস্তানের জলপ্রদেশ পার করার কারনে তাদের গ্রেফতার করা হয়। সেদেশের নতুন প্রধানমন্ত্রী শপথ গ্রহণের আগে ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্কের ইঙ্গিত দিতেই পাকিস্তানের এমনই পদক্ষেপ বলে মনে করা হচ্ছে।

সুত্রের খবর, ভারতীয় মৎস্যজীবীদের করাচির মালির জেল থেকে ক্যান্ট রেলওয়ে স্টেশনে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখান থেকে লাহোরে নিয়ে যাওয়া হবে। মঙ্গলবার অর্থাৎ পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসের দুপুরে তাদের ওয়াঘা সীমান্তে ভারতীয় অফিসারদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

ইদি ফাউন্ডেশনের শাদ ইদি জানিয়েছেন, ‘‘মুক্ত ভারতীয় বন্দিদের যাতায়াতের খরচ জুগিয়েছে ইদি ফাউন্ডেশন। ভারত ও পাকিস্তান উভয় সরকারেই উচিত দরিদ্র মৎস্যজীবীদের কথা মাথায় রেখে বিধি নিষেধ কিছুটা শইথিল করা। দুটি দেশেরই মৎস্যজীবীরা খুবই দরিদ্র। তাদের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মুক্ত করে দেওয়া উচিত। নব নির্বাচিত সাংসদদের নিয়ে প্রথমেই আলোচনা হবে মন্ত্রীসভায়। তারপর ক্ষমতা হস্তান্তরের পক্রিয়া শুরু হবে।

পাকিস্তান ও ভারত প্রায়ই মৎস্যজীবীদের গ্রেফতার করে। কারন আরবসাগরের উপকূলে কোন সিমারেখা নেই। এই মৎস্যজীবীদের কাছে দিক নির্ধারণ করার উপযুক্ত কোনো যন্ত্র থাকে না। ধীর এবং দীর্ঘ বিচারপক্রিয়ার কারনে এই মৎস্যজীবীদের মাসের পর মাস বন্দী থাকতে হয়। এসবের পাশাপাশি পাকিস্তান চাইছে ভারতও পাকিস্তানের মৎস্যজীবীদের মুক্তি দিক।

----
-----