১৮ ঘণ্টার অপারেশন শেষে খতম তিন জঙ্গি

ফাইল ছবি

শ্রীনগর: ১৮ ঘণ্টার অপারেশনে জখম সাত জওয়ান৷ কিন্তু দীর্ঘ অপারেশন শেষে তিন জঙ্গিকে নিকেশ করতে সফল হল নিরাপত্তা বাহিনী৷ আরও একবার উপত্যকার বুকে জঙ্গি নিধন অভিযানে সাফল্যের মুখ দেখল ভারতীয় সেনা৷

আরও পড়ুন- ডোকলাম সংঘাতের পর ‘হাতে-হাত’ রেখে মহড়ায় নামছে ভারত-চিন

শনিবার বিকেল থেকে শ্রীনগর থেকে অদুরে মুজগন্ড এলাকায় শুরু হয় সেনা-জঙ্গির গুলির লড়াই৷ যা গড়ায় রবিবার বেলা অবধি৷ এই ১৮ ঘণ্টার অপারেশনে সাত জওয়ান জখম হয়েছেন৷ ক্ষতি হয়েছে বেশ কিছু বাড়ির৷ তবুও জঙ্গিদের এক ইঞ্চি জমি ছাড়ার সুযোগ দেয়নি নিরাপত্তা বাহিনী৷ ফলস্বরূপ এক লস্কর ও দুই কাশ্মীরি জঙ্গিকে খতম করতে সক্ষম হয়েছে ভারতীয় সেনা৷

- Advertisement -

এদিকে এনকাউন্টারকে ঘিরে কোনও উত্তেজনা যাতে না ছড়ায় তার জন্য শনিবার রাত থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয় ইন্টারনেট ও মোবাইল পরিষেবা৷ জওয়ানদের কাছে খবর আসে এই চত্ত্বরে জঙ্গিরা লুকিয়ে আছে৷ সেই খবরের সূত্র ধরে পুলিশ ও সেনার যৌথ বাহিনী তল্লাশি চালায়৷ ঘিরে ফেলা হয় গোটা এলাকা৷ এরপরই নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে জঙ্গিরা৷ শুরু হয় এনকাউন্টার৷ যা গড়ায় ১৮ ঘণ্টা অবধি৷

সাম্প্রতিক অতীতে একাধিকবার পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে জঙ্গিরা৷ একের পর এক অভিযানে তাদের নিকেশ করেছে ভারতীয় সেনা৷ খতম হয়েছে হিটলিস্টে নাম থাকা সন্ত্রাসবাদীরা৷ লাগাতার জঙ্গি নিধন অভিযানের জেরে কাশ্মীরে চলতি বছর নিকেষ হয়েছে ২৩০ জন সন্ত্রাসবাদী৷ জানিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ এদিনের এনকাউন্টারের পর সেই তালিকায় আরও তিন জঙ্গির নাম জুড়ল৷ তবে কাশ্মীরে এখনও সক্রিয় ২৪০ জঙ্গি৷ যাদের অধিকাংশ বহিরাগত৷

এখনও অবধি নিহত জঙ্গিদের পরিচয় জানা যায়নি৷ পুলিশ জানিয়েছে তাদের নাম পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে৷ ঘটনাস্থল থেকে অনেক অস্ত্র পাওয়া গিয়েছে৷