৩৬ মহিলা, শিশুকে অপহরণ করেছে আইএস: রিপোর্ট

দামাস্কাস: গত সপ্তাহে সিরিয়ায় সোয়েদার দক্ষিণ প্রদেশের গ্রামে হামলা চালিয়ে ৩৬ দ্রুজ মহিলা এবং শিশুকে ইসলামিক স্টেট গ্রুপ অপহরণ করে বলে জানা গিয়েছে৷ বুধবার সেখানে আইএস-এর আত্মঘাতী হামলা এবং বন্দুকের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছে ২৫০-এর বেশি জন৷

সূত্র অনুযায়ী, ৩৬ দ্রুজ মহিলা অপহৃত, রয়েছে শিশুও৷ চার মহিলা পালিয়ে যেতে সফল হলেও দুজন প্রাণ হারিয়েছে বলে জানান সিরিয়ান অবজারভেটারির প্রধান রামি আবদেল রহমান৷ আইএস-এর টার্গেটে থাকা ১৭জন পুরুষের হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না৷ তবে তারা অপহৃত হয়েছে কি না তা স্পষ্ট নয়৷

পড়ুন: সেনাকে চড় মারার শাস্তি শেষ, মুক্ত তামিমি

রামি আবদেল এবং সিরিয়ার সংবাদ সংস্থার খবর অনুযায়ী, ২০ মহিলা এবং ১৬শিশুকে অপহরণ করা হয়েছে৷ এদিকে আইএস-এর পক্ষ থেকেও অপহরণের কোনও কথা বলা হয়নি৷

সিরিয়ার পরিস্থিতি ক্রমেই আরও চিন্তার হয়ে উঠছে সবদিক থেকেই৷ প্রশ্ন উঠছে, সিরিয়া সমস্যা থেকেই কি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের ঘন্টা বাজবে? রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের জন্য সিরিয়ার বিরুদ্ধে যেখানে আমেরিকা এবং তার সহযোগী দেশগুলি সরব, সেখানেই সিরিয়ার সরকার আমেরিকার পদক্ষেপের কড়া নিন্দা করেছে৷

পড়ুন: সিরিয়ার এয়ারবেস টার্গেট করে মিসাইল হানা

কিছু রিপোর্টে জানা গিয়েছে, রাশিয়ার যুদ্ধ জাহাজ সিরিয়ার দিকে এগিয়ে আসছে৷ সূত্রের খবর, রবিবার সিরিয়ার দিকে রাশিয়ার যুদ্ধ জাহাজকে এগিয়ে যেতে দেখা গিয়েছে৷ এতে ট্যাংক, মিলিটারি ট্রাক এবং অস্ত্রসহ নৌকাও রয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷এদিকে, সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রসঙ্ঘ৷ উদ্বিগ্ন উত্তর কোরিয়ার কার্যকলাপ নিয়েও৷ রাষ্ট্রসঙ্ঘের আশঙ্কা উত্তর কোরিয়া রাসায়নিক অস্ত্র তৈরিতে ব্যবহার করা যায় এমন উপাদান সিরিয়ায় সরবরাহ করছে৷

----
-----