গণধর্ষিতাকে বেশ্যা বলায় সাসপেন্ড চার পুলিশ কর্মী

চন্ডীগড়: গণধর্ষণের শিকার এক তরুণীর অভিযোগ নিতে অস্বীকার ও তাঁকে বেশ্যা বলে কটুক্তি করায় সাসপেন্ড করা হল চার পুলিশ কর্মীকে৷ সাসপেন্ড পুলিশ কর্মীদের মধ্যে পঞ্চকুলা থানার সরস্বতী নামে একজন মহিলা সাব ইন্সপেক্টরও আছেন৷ তরুণীর স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷

সম্প্রতি মোরনি হিল এলাকায় এক তরুণীকে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ৷ চারদিন ধরে তাঁকে আটকে রাখা হয়৷ এরপর ৪০ জন ব্যক্তি মিলে তাঁকে গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ৷ এই ঘটনা হরিয়ানা জুড়ে আলোড়ন ফেলে দেয়৷ পরে ওই নির্যাতিতা পঞ্চকুলা মহিলা থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে তাঁকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসিয়ে রাখা হয়৷ পরে তাঁর অভিযোগ নিতেও অস্বীকার করেন ওই মহিলা সাব ইন্সপেক্টর৷ এমনটাই অভিযোগ৷ নির্যাতিতাকে চন্ডীগড় থানায় অভিযোগ করতে বলা হয়৷ পরে সেখানে গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করা হলেও সেটি পঞ্চকুলা থানায় স্থানান্তর করা হয়৷

ওই তরুণীর স্বামী পরে অভিযোগ করে জানান, পঞ্চকুলা থানা প্রথমে অভিযোগটি নিতে অস্বীকার করে৷ কেননা তাঁর স্ত্রীকে বেশ্যা বলে মনে হয় তাদের৷ চন্ডীগড় থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, মোরনি হিল এলাকাটি দেহ ব্যবসার জন্য কুখ্যাত৷ এখানে অনেক হোটেল ও গেষ্ট হাউসে দেহ ব্যবসার কারবার হয়৷

- Advertisement -

ওদিকে পঞ্চকুলা পুলিশ ইতিমধ্যে স্পেশাল টাস্ক ফোর্স গঠন করে গণধর্ষণের তদন্ত শুরু করেছে৷ এই ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত সানি সহ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে৷ বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে৷ জানা গিয়েছে, অভিযুক্তদের মধ্যে দু’জন পুলিশও আছে৷

Advertisement ---
-----