হোটেলে বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে মৃত পাঁচ

লখনউ: বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেল একটি হোটেল৷ ঝলসে মারা গেলেন পাঁচ জন৷ আগুনের বিষাক্ত ধোঁয়ায় আরও পাঁচ জন গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন৷ তাঁদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ তিন জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে খবর৷ তাদের শরীর ৯০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে৷ মঙ্গলবার লখনউয়ের ছারবাগ এলাকার একটি জনপ্রিয় হোটেলে আগুন লাগার ঘটনাটি ঘটে৷

সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে লখনউয়ের এসএসজে ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি হোটেলে প্রথম আগুন লাগে৷ প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, আগুন লাগার কারণ শর্ট সার্কিট৷ হোটেলের বেসমেন্টে আগুন লাগে৷ ক্রমে সেই আগুন বিধ্বংসী চেহারা নিতে শুরু করে৷ পাশের একটি নির্ণীয়মান বাড়ি ও একটি হোটেল আগুনের গ্রাসে চলে আসে৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন ছবি ও ভিডিওতে দেখা গিয়েছে কীভাবে আগুনের লেলিহান শিখা গ্রাস করেছে গোটা হোটেলকে৷

লখনউয়ের আইজি এস পাণ্ডে জানিয়েছেন, সকাল সাড়ে পাঁচটায় প্রথম আগুন লাগার বিষয়টি নজরে আসে হোটেল কর্মীদের৷ ছ’টা নাগাদ খবর দেওয়া হয় পুলিশকে৷ এখনও অবধি ৫০ জনকে হোটেল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে৷ আগুন লাগার কারণ পরিস্কার নয়৷ তবে প্রাথমিক ভাবে মনে হচ্ছে শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগে৷ পূর্ণাঙ্গ তদন্তের পরই পরিস্কার হবে বিষয়টি৷ তদন্তে হোটেলের কোনও গাফিলতি প্রমাণিত হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷

- Advertisement -

সোশ্যাল মিডিয়াতে একজন দাবি করেছেন মৃতদের মধ্যে এক মহিলা ও শিশু আছে৷ যদিও সরকারি ভাবে এই খবরের কোনও সত্যতা মেলেনি৷ পুলিশ জানিয়েছে, হোটেল থেকে ৫০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে৷ এখনও অনেকে আটকে পড়ে আছে বলে খবর৷ তাদের উদ্ধারে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী৷ ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন উত্তরপ্রদেশের পর্যটন মন্ত্রী রীতা বহুগুণা যোশী৷ তিনি বিচারবিভাগীয় তদন্তের আশ্বাস দেন৷

Advertisement ---
---
-----