পর্দা ঢাকা জিপসিতে সেন্ট্রাল জেলের পথে সলমন

যোধপুর: পর্দা দিয়ে ঢাকা সাদা জিপসিতে যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে সলমন খানকে। পথে হবে নায়কের মেডিকেল চেকআপ। তারপরই জেলে ঢোকানো হবে তাঁকে। অভিনেতাকে রাখা হবে ১ নং ব্যারেকে।

তবে হার মানতে নারাজ সলমনের আইনজীবী। তিনি আবার সেশন কোর্টে গিয়েছেন বিচারকের সঙ্গে দেখা করতে।

জানা যাচ্ছে, শুক্রবার সকাল ১০:৩০ টায় বেল পাবেন সলমন। তাই আজ তাঁরটা যোধপুর সেন্ট্রাল জেলেই কাটাতে হবে সলমনকে।

- Advertisement -

(update)

কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলেন সলমন খান। আজ বৃহস্পতিবার যোধপুর আদালতের রায়ে পাঁচ বছরের জেল হয়েছে নায়কের। তবে বেকসুর খালাস পেয়েছেন সেফ আলি খান, তব্বু, নীলম ও সোনালি বেন্দ্রে। অবশেষে ২০ বছরের পুরনো কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় রায় ঘোষণা করল যোধপুর আদালত। বৃহস্পতিবার রাত সলমনকে জেলেই কাটাতে হবে বলে জানা গিয়েছে।

১৯৯৮ সালে সলমন, সেফ, তব্বু, নীলম ও সোনালি হাম সাথ সাথ হ্যায় ছবির শ্যুটিংয়ে যোধপুর গিয়েছিলেন। অভিযোগ, শ্যুটিং চলাকালীন ১ ও ২ অক্টোবরের রাতে আলাদা আলাদা দুটি জায়গায় সলমন কৃষ্ণসার শিকার করেন। কাঙ্কাণি গ্রামে তাঁর বিরুদ্ধে যে দুটি কৃষ্ণসার শিকারের অভিযোগ রয়েছে, তারই আজ রায় দিল আদালত।

এর আগে এই মামলায় বারবার নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন তারকা। যদিও এবার আর কোনও যুক্তিই ধোপে টিকল না। বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইনের ৫১ নম্বর ধারায় তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করল আদালত।

Advertisement ---
---
-----