নিচে অভিযোগকারী রাজু দেবনাথের তোলা অভিযুক্ত ব্যক্তির ছবিটি দেখুন

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: এটিএম প্রতারণায় অপরিচিত এক ব্যক্তিকে ঘিরে রহস্য দানা বেঁধেছে৷ একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের এটিএম থেকে প্রতারকরা একবারে ৫০ হাজার টাকা তুলে নিয়েছে৷ গ্রাহকের প্রাথমিক অনুমান এই প্রতারণার সঙ্গে টুপি পরা এক ব্যক্তি(ছবিতে যাকে দেখা যাচ্ছে) জড়িত৷ তার ছবি দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক ও পুলিশকে৷

অভিযোগকারী রাজু দেবনাথ জানান, মঙ্গলবার অফিস যাওয়ার পথে ওই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের চিনা পার্কের ই-কর্নার এ তিনি যান৷ এটিএম কার্ডের পিন নম্বর পরিবর্তন করার জন্য ই-কর্নারের ভিতরে ঢোকেন৷ পিন নম্বর পরিবর্তন করার সময় হঠাৎ টুপি পরে এক ব্যক্তি ওই ই-কর্নারের ভিতরে ঢোকে সাহায্যের নাম করে তাকে বিরক্ত করতে থাকেন৷ আমি তখন ভয় পেয়ে বাইরে বেরিয়ে আসি৷ এবং ওই লোকের ছবি আমার মোবাইল বন্দি করি৷ কারণ, ঘটনার সময় ওই এটিএমে কোনও নিরাপত্তাকর্মী ছিল না৷ যদিও ভিতরে একটি পুরানো সিসি ক্যামেরা রয়েছে৷

পড়ুন: নাবালিকাকে যৌন হেনস্থায় ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড বৃদ্ধের

তিনি আরও জানান, টাকা না তুলেই তিনি ই-কর্নার থেকে বেরিয়ে আসেন৷ টুপি পরা ওই ব্যক্তি এটিএমের সামনে থাকার পর বেরিয়ে যান৷ তার কিছুক্ষণ পরই মোবাইলে একটি এসএমএস আসে৷ তাতে দেখা যায় ৫০ হাজার টাকা তোলা হয়েছে৷ ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে রাজু দেবনাথর হরিণঘাটার ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ করেন৷ এবং সময় নষ্ট না করে চিনা পার্কের ই-কর্নারের পাশের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের শাখায় যান৷ তারা তাকে লালবাজার যেতে বলেন৷

পড়ুন: তৃণমূল-বিজেপির দল ভেঙে মালদহে সিপিএম বলল ‘আমরাও আছি’

রাজুবাবু ছুটে যান লালবাজার, সেখান থেকে বলা হয় বিধাননগর পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করতে৷ তারপরই আসেন বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানায়৷ অভিযোগ তাকে দীর্ঘক্ষণ বসিয়ে রাখার পরও কোনও অভিযোগ নেওয়া হয়নি৷ এরপর যান বাগুইআটি থানায়, সেখানে অবশেষে একটি জেনারেল ডায়েরি নেওয়া হয়৷

পড়ুন: চুরি যাওয়া তৈরি চা পাতা উদ্ধার করল পুলিশ

এই ঘটনায় Kolkata24x7-এর পক্ষ থেকে টেলিফোনে যোগাযোগ করা হয় ব্যাংকের সহকারি ম্যানেজারের সঙ্গে৷ তিনি জানান, যা বলার গ্রাহককে বলা হয়েছে৷ তবে রাজু দেবনাথ জানান, ব্যাংক তাকে জানিয়েছে যে ২৫টি ২০০০ টাকার নোট একবারে তুলে নেওয়া হয়েছে৷ তিনি সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখতে চান কিন্তু তাকে বলা হয় কিছু দিন সময় লাগবে৷

--
----
--