৬ রাজ্যের প্রাকৃতিক দুর্যোগের বলি ৫৩৭

নয়াদিল্লি: দাপট দেখাতে শুরু করেছে বর্ষা৷ বিভিন্ন রাজ্যে বৃষ্টির যা ঘাটতি ছিল তা মিটতে চলেছে ঠিকই৷ কিন্তু চিন্তায় ফেলেছে অতি বৃষ্টি৷ একাধিক রাজ্যে অতি বর্ষণের যা ছবি সামনে এসেছে তাতে মালুম হয় পরিস্থিতি উদ্বেগের৷ জলের তলায় চলে গিয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা৷ ঘর ছাড়া বহু মানুষ৷ ভারী বৃষ্টি প্রাণ কেড়েছে বহু মানুষের৷ সবথেকে খারাপ অবস্থা দেশের ছ’টি রাজ্যের৷ এই রাজ্যগুলিতে এখনও অবধি প্রাকৃতিক দুর্যোগের বলি হয়েছে ৫০০র বেশি মানুষ৷

শনিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের ন্যাশনাল এমার্জেন্সি রেসপন্স সেন্টার যে পরিসংখ্যান সামনে এনেছে তাতে দেখা গিয়েছে মহারাষ্ট্র, কেরল, পশ্চিমবঙ্গ, উত্তরপ্রদেশ, গুজরাত ও অসম এই ছয় রাজ্যে গত কয়েকদিনে দুর্যোগের জেরে প্রাণ হারিয়েছেন ৫৩৭ জন৷ সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে মহারাষ্ট্রে৷ এখানে ১৩৯ জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন৷ এরপরেই আছে কেরল৷ সেখানে মৃতের সংখ্যা ১২৬৷ তৃতীয়ে আছে পশ্চিমবঙ্গ৷ এখানে ১১৬ জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন৷ এছাড়া উত্তরপ্রদেশ, গুজরাত ও অসমে মৃতের সংখ্যা যথাক্রমে ৭০, ৫২ ও ৩৪৷

কয়েকদিন আগে টানা বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছে মহারাষ্ট্র৷ রাজ্যের ২৬টি জেলায় বন্যা পরিস্থিতির তৈরি হয়৷ একই অবস্থা হয় অসম, পশ্চিমবঙ্গ, কেরল, গুজরাত ও উত্তরপ্রদেশে৷ টানা দু’দিনের বৃষ্টিতে উত্তরপ্রদেশের বিস্তীর্ণ অংশ জলমগ্ন হয়ে পড়েছে৷ জল জমেছে বিরল স্মৃতিশৌধ তাজমহল ও তার সংলগ্ন এলাকাতেও৷

- Advertisement -

বন্যার জেরে অসমে ১০.১৭ লক্ষ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে৷ এদের মধ্যে ২.১৭ লক্ষ মানুষ এখন ত্রাণ শিবিরে আছেন৷ পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা ততটা খারাপের দিকে না গেলেও এখনও অবধি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ১.৬১ লক্ষ মানুষ৷ কেরলে ঘরছাড়া ১.৪৯ লক্ষ মানুষ৷ নিখোঁজ নয় জন৷ বন্যা দুর্গতদের সাহায্যে নামানো হয়েছে ৪০টি জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দল৷ প্রতিটি দলে ৪৫ জন সদস্য রয়েছেন৷ কোনও রাজ্যে আটটি, কোথাও ১২টি কোথাও বা সাতটি টিম পাঠানো হয়েছে৷ দ্রুততার সঙ্গে তারা পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার কাজ করছেন৷

Advertisement ---
---
-----