সাত তারা হোটেলের সমান বাংলো তেজস্বীর, রয়েছে ৪৬টা এসি : মোদী

পাটনা : সীমান্তে জওয়ান শহিদ হচ্ছেন, ‘দলিত’ বলে শেষকৃত্য করতে পারছেন না জওয়ানের পরিবার, আর অন্যদিকে মন্ত্রীরা জুতো পায়ে জওয়ানদের শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে বিতর্ক তৈরি করছেন৷ দেশের মধ্যেই যোগ্য সম্মান পাচ্ছেন কী তাঁরা? এই প্রশ্নের উত্তর পাওয়ার আগেই নয়া বিতর্ক৷ এবার মন্ত্রীদের ফুলে ফেঁপে ওঠা সম্পত্তি বিতর্ক তৈরি করেছে৷

সম্প্রতি বিহারের উপ মুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদীকে তেজস্বী যাদবের ছেড়ে যাওয়া সরকারি বাংলোয় স্থানান্তরিত করা হয়৷ সেই বাংলোয় ঢুকে নাকি চক্ষু চড়কগাছ সুশীল মোদীর৷ আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদবকে কটাক্ষ করে মোদীর ট্যুইট এই বাংলো তো সাত তারা একটি হোটেলের সমান৷ যেখানে ৪৬টি এসি লাগানো রয়েছে৷ যেকোন বড় বড় হোটেলকে লজ্জা দিতে পারে এই বাংলো বলে মত মোদীর৷

- Advertisement -

তেজস্বী কীভাবে সাধারণ মানুষের টাকা নয়ছয় করছেন, কীভাবে একটা সরকারি বাংলো নিজের দখলে রেখেছিলেন, সেই বিষয়েও উল্লেখ করেন সুশীল মোদী৷ তাঁর কটাক্ষ এই বাংলোয় থেকে কীভাবে সাধারণ মানুষের উন্নয়নের কথা ভাববেন তেজস্বী? পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর জন্য কীভাবে কাজ করবেন? পাশাপাশি, এই বাংলোর সংস্কার ও দেখভালের জন্য যে বিশাল খরচ হয়, তা একটা হাতি পোষার সমান বলেও মন্তব্য করেছেন সুশীল মোদী৷

এমনকী এই বাংলোর অভ্যন্তরীণ সাজসজ্জা বিহারের রাজভবনের থেকে ১০০ গুণ সুন্দর বলে দাবি এই উপমুখ্যমন্ত্রীর৷ অন্ধের মত টাকা খরচ করে এই বাংলোকে সাজানো হয়েছে৷ এজন্য কয়েক কোটি টাকা খরচ করা হয়েছে বলেও মত মোদীর৷ তিনি এও বলেন এই বাংলোয় থাকার যোগ্যতা তাঁর নেই৷

বাংলোটি মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারকে দেওয়া উচিত বলে মত দেন তিনি৷ কীভাবে বিহারের প্রাক্তন মন্ত্রী তেজস্বী জলের মত টাকা খরচ করেছেন, তা এই বাংলোতে ঢুকলেই বোঝা যায় বলে জানিয়েছেন সুশীল মোদী৷