সবুজ ঝড়ের ৭২ ঘণ্টা পরেও অশান্ত বাংলা

কলকাতা: ভোটের ফল প্রকাশ হওয়ার ৭২ ঘণ্টার পর অশান্ত বাংলা৷ সবুজ ঝড় আছড়ে পড়তেই শহর থেকে জেলা, সংবাদ শিরোনামে হিংসা-সন্ত্রা৷ কোথাও জোটের প্রার্থীর বাড়িতে ভাঙচুর, কোথাও আবার গুলিবিদ্ধ জোটের কর্মী৷ অশান্তি-হিংসার মধ্যেই চলেছে বাংলা ভোটের ‘বিজয় উৎসব’৷ রবিবার ফের রাজনৈতিক হিংসা উত্তপ্ত হয়ে উঠল যাদবপুর৷ শহিদস্মৃতি কলোনি এলাকায় সিপিএম কর্মীদের বাড়িতে ভাঙচুরের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে৷ পরিস্থিতি সামালতে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশ বিহিনী৷ বামেদের অভিযোগ, একদল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী এলাকার বাম কর্মী-সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালায়৷ প্রতিরোধ গড়ে বাম কর্মীরা। শুরু হয় উভয় পক্ষের বচসা-হাতাহাতি৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান বাম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী। সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে থানায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন৷

ভোট মিটতেই ফের সংবাদ শিরোনামে অনুব্রত মণ্ডলের নিজের জেলা বীরভূম৷ ভোট পরবর্তী হিংসায় নানুরে গুলিবিদ্ধ দুই তৃণমূল কর্মী। সিপিএমের বিরুদ্ধে এলাকায় তাণ্ডবের অভিযোগ৷ আহতদের নানুর হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে৷ অভিযোগ, সিপিএমের আশ্রিত দুষ্কৃতীরা নানুর বিধানসভার এলাকার একাধিক গ্রামে গিয়ে তৃণমূল সমর্থকদের খুনের হুমকি দেওয়া হয়৷ এলাকায় দুষ্কৃতীদের তাণ্ডবের অভিযোগ তুলে নানুর থানার অভিযোগ দায়ের করেছে তৃণমূল৷ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। নানুরের পর কেতুগ্রাম৷ সিপিএম কর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে৷ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের মারে গুরুতর জখম হিরণ শেখ নামের এক সিপিএম কর্মী৷ আহতকে কেতুগ্রাম গ্রামীণ হাসপাতালে ভরতি করা হয়৷ রবিবারের এই ঘটনায় কেতুগ্রামের আড়না মোড়ে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়৷

নানুরের পর বর্ধমান৷ তৃণমূল দুষ্কৃতীদের ছোঁড়া গুলিতে গুরুতর জখম হন এক সিপিএম কর্মী৷ এই ঘটনার জেরে আসানসোলের বারাবনির নেতাজি মোড়ের বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে৷ গুলিবিদ্ধ সিপিএম কর্মী পথিক বিশ্বাসকে আসানসোল মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে৷ এর আগেও গুলিবিদ্ধ সিপিএম কর্মী পথিক বিশ্বাসের ভাইকে তৃণমূল কর্মীরা খুনের হুমিক দেয় বলেও অভিযোগ তুলেছে স্থানীয় সিপিএম নেতৃত্ব৷

- Advertisement -

বর্ধমানের পর বাঁকুড়া৷ তৃণমূলের পার্টি অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে৷ পার্টি অফিস ভাঙচুরের অভিযোগে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে বিষ্ণুপুরের বেলুশুরি গ্রামে। জানা গিয়েছে, বেলুশুরিয়া গ্রামে তৃণমূলের পার্টি অফিস দখল নেওয়ার চেষ্টা করে এক দল দুষ্কৃতী৷ অভিযোগ, সেই সময় কিছু দুষ্কৃতী তাঁদের দিকে শাবল ও কুড়ুল নিয়ে তেড়ে আসে। তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা প্রতিবাদ করলে তাদের মারধর করা ও কার্যালয় ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ তৃণমূলের৷ এই ঘটনার তৃণমূলের পক্ষ থেকে বিষ্ণুপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷

বাঁকুড়ার পর এবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী৷ ফের প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষ৷ তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে আহত আট তৃণমূল কর্মী৷ আহতদের স্থানীয় গ্রামীণ হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে৷ রবিবার এই ঘটনার জেরে বাসন্তীর কুমড়োখালি গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়৷

জেলার পর খোদ শহর কলকাতায় এবার হামলার মুখে পড়তে হল জোটের প্রার্থীকে। শনিবার রাতে কসবার সিপিএম প্রার্থী শতরূপ ঘোষের বাড়িতে হামলা হয় বলে অভিযোগ৷ শতরূপ ঘোষের অভিযোগ, রাত একটা নাগাদ হঠাৎই ১০-১২ জনের একটি বাইক-বাহিনী লোহার রড, লাঠি নিয়ে চড়াও হয় তাঁর বাড়িতে। বাড়িতে ভাঙচুর চালানোর পাশাপাশি তাঁকে নানা রকম হুমকি দেওয়া হয়। চলে অকথ্য গালিগালাজও। পাশাপাশি শনিবার গভীর রাতে হামলা চলে বাঘাযতীন স্টেশন রোডে গণেশ মজুমদারের বাড়িতে। স্থানীয় লোকাল কমিটির সদস্য গণেশবাবুর অভিযোগ গতকাল রাত একটা নাগাদ তাঁর বাড়ির জানলা লক্ষ্য করে দু’টি বোমা মেরে পালায় দুষ্কৃতীরা। সেই সময়ই পাটুলি থানায় ফোন করে সাহায্য চান তিনি। কিন্তু, তিনি কোনও সহযোগিতা পাননি বলেও অভিযোগ তোলেন৷

Advertisement
---