মোবাইলে অ্যাপ বসিয়ে বিধায়কদের ট্র্যাক করতে চাইছে কংগ্রেস

বেঙ্গালুরু: ইতিমধ্যেই নিখোঁজ দুই কংগ্রেস বিধায়ক। দল ছেড়েছেন আরও একজন। এই অবস্থায় বিধায়কদের টিকিয়ে রাখতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে কংগ্রেস ও জেডিএস। ঘোড়া কেনা-বেচার হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য আগেই বিধায়কদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল রিসর্টে। তবে ফোনে কথোপকথন রুখতেও এবার নেওয়া হল বিশেষ ব্যবস্থা।

না, বিধায়কদের ফোন জমা নেওয়ার কথা বলছে না দল। বরং তাদের ফোনে ইনস্টল করে দেওয়া হচ্ছে এক বিশেষ অ্যাপ। যাতে কি ফোন আসছে বা যাচ্ছে তার পুরো রেকর্ড পাওয়া যায়।

এর আগে ঘোড়া কেনা-বেচা রুখতে বিধায়কদের বেঙ্গালুরুর ঈগলটন রিসর্টে রাখা হয়েছিল। কিন্তু এদিন সেই রিসর্টের বাইরে থেকে সরকারি নিরাপত্তা তুলে নেওয়া হয়। যা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন কংগ্রেস নেতা কে এইচ মুনিয়াপ্পা। তারপরই দুই দলের নেতারা আলোচনা করে ঠিক করেন, রাজ্যে বিধায়করা থাকলে অর্থ ও পদের লোভ দেখিয়ে দল ভাঙানোর চেষ্টা চলবেই। তাই ‘অপারেশন কমল’ বানচাল করতে তড়িঘড়ি বিধায়কদের কোচিতে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

- Advertisement -

পরে অবশ্য বিধায়কদের তিন ভাগে ভাগ করে পাঠিয়ে দেওয়া হয় কোচি, হায়দরাবাদ ও পুদুচেরীতে।

ফল প্রকাশের পরের দিনই কুমারস্বামী অভিযোগ আনেন, বিজেপি ১০০ কোটি টাকার টোপ দিচ্ছে জেডিএস বিধায়কদের। এরপরই সতর্ক হয় কংগ্রেস-জেডিএস। ফল বেরনোর পর থেকে নিখোঁজ কংগ্রেস বিধায়ক আনন্দ সিং জানিয়েছেন, তিনি কংগ্রেসে থেকে ইস্তফা দিলেও আস্থা ভোটে বিজেপিকেও সমর্থন করবেন না।