আইপিএলে দেখা যাবে ‘৩৬০’ ঝলক

কেপটাউন: চলতি বছরের আইপিএলের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন৷ তাঁর অবসরের খবর শুনে বিদায়ী শুভেচ্ছার পোস্টে উপছে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়া৷ ক্রিকেট অনুরাগীরা তাঁকে কতটা ভালোবাসে পোস্টগুলিই সেকথা জানান দিয়েছিল৷ সেদিনের সেই হতাশ ফ্যানেদের মুখে হাসি ফোটাতে পারে এই খবর৷

দেশের জার্সি তুলে রাখলেও আগামী কয়েক মরুশুমে আইপিএল খেলবেন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান এ বি ডিভিলিয়ার্স৷ মঙ্গলবার দক্ষিণ আফ্রিকার সংবাদমাধ্যমে এমনটাই জানিয়েছেন ক্রিকেটের ‘মিস্টার ৩৬০ ডিগ্রি’৷

তবে ঠিক কতবছর আইপিএলে তাঁকে খেলতে দেখা যাবে, সেবিষয়ে খোলসা করে কিছু জানাননি এবিডি৷ প্রাক্তন প্রোটিয়া অধিনায়ক জানিয়েছেন, ‘আগামী কয়েক বছর আইপিএলে খেলব৷ সেই সঙ্গে উঠতি ক্রিকেটারদের গাইড করতে চাই৷’ তবে এসব নিয়ে নির্দিষ্ট কোনও পরিকল্পনা এখনও করেননি প্রোটিয়া ডানহাতি৷ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের জনপ্রিয় ক্রিকেট লিগগুলিতে খেলার একাধিক প্রস্তাব পেয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

- Advertisement -

১৪ বছরের ক্রিকেট কেরিয়ারে ১১৪টি টেস্টে আট হাজারের বেশি রান রয়েছে ডিভিলিয়ার্সের৷ ২২৮টি ওয়ান ডে ম্যাচে রয়েছে সাড়ে নয় হাজারের বেশি রান৷ সব ধরনের টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৫১ ম্যাচে রয়েছে ৬৬৪৯ রান৷

এবিডি মানেই রেকর্ডবুক৷ ওয়ান ডে ক্রিকেটে দ্রুততম অর্ধশতরান, শতরান ও দেড়শো রান হাঁকানোর নজির রয়েছে তাঁর মুকুটে৷ ২০১৫ সালে জোহানেসবার্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ১৬ বলে অর্ধশতরান হাঁকিয়েছিলেন ডিভিলিয়ার্স৷ ঐ ম্যাচেই এবিডি’র শতরান এসেছিল মাত্র ৩১ বলে৷

ক্রিকেটের মিস্টার ‘৩৬০ ডিগ্রি’ তাঁর দেড়শো রানের ‘ড্যাডি’ ইনিংস হাঁকিয়েছেন ৬৪ বলে৷ সেটা ২০১৫ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে৷ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সেই ম্যাচে শেষ পর্যন্ত ৬৬ বলে ১৬২ রানে অপরাজিত থেকে প্যাভিলিয়নে ফিরেছিলেন ডিভিলিয়ার্স৷ তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল ১৭টি চার ও ৮টি ওভার বাউন্ডারি দিয়ে৷

আইপিএলের মতো মেগা টুর্নামেন্টেও ব্যাট হাতে এন্টারটেনারের ভূমিকায় পাওয়া গিয়েছে এবিডি’কে৷ আইপিএলে ১৪১ ম্যাচে ৩৯৫৩ রান রয়েছে ডিভিলিয়ার্সের৷ তিনটে সেঞ্চুরির পাশপাশি রয়েছে ২৮টি অর্ধশতরান৷ সব মিলিয়ে আইপিএলে ১৮৬টি ছয় ও ৩২৬টি চার হাঁকিয়েছেন ডান হাতি এই ব্যাটসম্যান৷

Advertisement ---
---
-----