সলমনের সঙ্গে কাজ করতে নারাজ এই বলি-নায়িকারা

মুম্বই : মোস্ট এলিজেবেল ব্যাচলার৷ বলিউডের ‘ভাইজান’৷ তাঁর এক ঝলকে কুপকাত অগণিত ভক্তকূল৷ বক্স অফিসের ‘সুলতান’ তিনি৷ তিনি হলেন সলমন খান৷ শিরোনাম জুড়ে এখন তাঁরই নাম৷ তবে এবারে তাঁর প্রসঙ্গ উছল ভিন্ন কারণে৷ সলমন খান নিঃসন্দেহে ইণ্ডিয়ান ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বিরাট জনপ্রিয় তারকা৷ তাঁর সঙ্গে স্ক্রীন স্পেস শেয়ার করার জন্য প্রস্তুত প্রত্যেকটি নায়িকা৷ তবে কয়েকজন অভিনেত্রী আছেন যাঁরা সরাসরি না বললেও কাজ করতে চাননা সলমনের সঙ্গে৷

১) দীপিকা পাডুকোন এখন বলিউডের রানী৷ প্রতিটি হিট ছবি তাঁর ঝুলিতে৷ টিনসেলের অন্যতম বিখ্যাত অভিনেত্রী তিনি৷ তাঁর সঙ্গে সলমন খানের পেয়ারিং দেখতে অনেকেই উৎসাহিত৷ তাঁদের একই ছবির নায়ক-নায়িকা হিসেবে দেখতে চেয়েছেন বহু নির্মাতা৷ সেই মতো এগোতে গেলেও প্রতিবারই পথের কাঁটা হয়ে দাড়িয়েছেন স্বয়ং দীপিকা৷ ছলে-বলে প্রায় পাঁচবার সাল্লুর সাথে কাজ করার অফার ঠুকরে দিয়েছেন তিনি৷ কারণ যা সামনে এসেছে তা হল স্ক্রিপ্ট পছন্দ হয়নি হিরোইনের৷ আসল কারণ যে এটাই সে নিয়ে বেশ সন্দেহ রয়েছে৷

২) সোনালি বেন্দ্রে ও সলমন খানের জুটি সকলের মন কেড়েছিল৷ তাঁদের রোমান্টিক কেমিস্ট্রি ‘হম সাথ সাথ হ্যয়’ ছবির অন্যতম আকর্ষন৷ তবে এই ছবির পর আর কখনও একই ছবিতে দেখা যায়নি তাঁদের৷ যদিও সলমনের কয়েকটি মুভিতে ক্যামিও করতে দেখা গিয়েছিল সোনালিকে৷ তবে ধারণা করা যেতে পারে কৃষ্ণসার হত্যা মামলার জন্যই বেঁকে বসেন অভিনেত্রী৷ সেই দুর্ঘটনার পরই হয়তো আর ‘ভাইজান’র সঙ্গে কাজ করতে রাজি হননি তিনি৷

- Advertisement -

৩) জুহি চাওলার সঙ্গে সলমন একবারই একটি ছবিতে অভিনয় করেন তাও স্পেশাল অ্যাপিয়ারেন্সে ছিলেন সলমন৷ ছবির নাম ‘দিওয়ানা মস্তানা’৷ দুজন তারকাই নয়ের দশকে বিশাল ডিমান্ড৷ তবে তাঁরা কেন একসঙ্গে কাজ করেননি তা এখনও রহস্য৷

৪) ‘জব প্যয়র কিসিসে হোতা হ্যয়’ ছবিতে সলমন চুটিয়ে রোমান্স করেছিলেন ট্যুইঙ্কাল খান্নার সঙ্গে৷ ছবিটি বেশ হিটও হয়েছিল৷ তবে ট্যুইঙ্কাল এরপর দুজনে আর কখনও একসঙ্গে কোন ছবি সাইন করেনি৷ কী কারণ সেটা এই দুজন ছাড়া আর কোরোর পক্ষেই বলা সম্ভব নয়৷

৫) আমিশা পাটেল নিজের জাদু ছড়িয়েছিলেন ‘কাহো না প্যায়র হে’ ছবিতে সোনিয়ার ভূমিকায়৷ ‘ইয়ে হে জলবা’ ছবির নির্মাতারা ভেবেছিলেন সলমনের বিপরীতে আমিশাকে কাস্ট করলে হয়তো ছবি ব্লকবাস্টার হতে বাধ্য৷ তবে ছবি মুক্তি পেতে না পেতেই পাওয়া গেল কেবল জলের মতো ঠান্ডা কেমিস্ট্রি৷ এই কারণেই বোধহয় আর দজনে একে অপরের সাথে কাজ করেনেনি৷

৬) একটা সময় বলিপাড়ার গুঞ্জন ছিল ‘প্রেম রতন ধন পাও’ ছবিতে সলমনের বনের ভূমিকায় অভিনয় করার কথা ছিল অমৃতা রাওয়ের৷ ছবির নির্মাতাদের অন্তত তেমনি ইচ্ছা ছিলেন৷ নায়িকার কাছে অফার নিয়ে যেতেই উল্টে নায়িকা অন্য অফার দিল কাস্টিং ডিরেক্টরকে৷ অমৃতার চেয়েছিলেন সলমনের লাভ ইন্টারেস্ট হিসেবে ছবিতে থাকতে৷ অর্থাৎ সোনাম কাপূরের চরিত্রটি করতে চেয়েছিলেন তিনি৷ তবে রাজি হলনা পরিচালক থেকে শুরু করে কেউই৷ অগত্যা ছবিটি থেকে পিছিয়ে যাব অমৃতা রাও৷

Advertisement ---
---
-----