বহরমপুর: ফের সাংবাদিক সম্মেলনে তৃণমূলকে বিঁধলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি৷ রবিবার বহরমপুরে অধীর বলেন, তৃণমূল যদি মনে করে তারা ছাড়া ভারতবর্ষে বিকল্প কিছু নেই, তাহলে মুর্খের স্বর্গে বসবাস করছে৷ ভারতবর্ষে ৫৪৫টা লোকসভার সাংসদ৷ তৃণমূলের মাথায় রাখা উচিৎ সারা পশ্চিমবঙ্গে জিতলেও তাদের জুটবে ৪২টা আসন৷ এরপরই অধীরের তোপ, এই বিয়াল্লিশের সঙ্গে শূন্য জুড়ে তৃণমূল ৪২০ হতে পারবে কিন্তু বাকি কিছুই করার ক্ষমতা তাদের নেই৷

আরও পড়ুন: পাচারকারীদের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে বাংলা: অধীর

Advertisement

অধীর চৌধুরী এদিন ফেডারেল ফ্রন্ট প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করে বলেন, ‘‘নরেন্দ্র মোদীকে টক্কর দিতে গিয়ে শনিবার মেদিনীপুরে সভা করল তৃণমূল৷ কিন্তু সেই সভা তো ফ্লপ হল আমরা দেখতে পেলাম৷ ময়দান ফাঁকা৷ ভাইপোর হাল তো আমরা দেখতেই পেলাম৷ তারা কী লড়বে বিজেপির বিরুদ্ধে?’’

শুনে নিন কী বললেন অধীর চৌধুরি…

এরপরই অধীরের গুরুতর অভিযোগ, ‘‘বিজেপির বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লড়াই করার ক্ষমতাই নেই৷ তাছাড়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি বিজেপির বিরুদ্ধে রাজনীতির লড়াইয়ে সৎ? কেন না যখন বিরোধী শিবির একসঙ্গে হয়ে বিজেপিকে একের পর এক নির্বাচনী লড়াইয়ে হারাচ্ছে৷ তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফেডারেল ফ্রন্ট করছেন৷ এতে কার হাত শক্ত করতে চাইছেন তিনি! নরেন্দ্র মোদীরই৷ কারণ বিরোধী ভোট ভাগাভাগি হওয়া মানে নরেন্দ্র মোদীর হাতই শক্ত হওয়া৷’’

আরও পড়ুন: ঝড়ের দাপটে লণ্ডভণ্ড ‘রানি রাসমনির’ সেট

তৃণমূলকে কটাক্ষ করে অধীর চৌধুরীর মন্তব্য, ‘‘সারা রাজ্যে তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্ব, খুনখারাপি চলছে৷ কোচবিহার থেকে কাঁথি দলীয় কোন্দলে নাজেহাল তৃণমূল৷’’ প্রশ্ন করা হয়েছিল বারবার মুখ্যমন্ত্রীর সফর বাতিল নিয়েও৷ সে প্রসঙ্গে অধীর বলেন, ‘‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কোথায় শিকাগোতে ডাকছে, চিন ডাকছে আবার তাড়িয়ে দিচ্ছে আমাদের জানা নেই৷ দিল্লিতে ডাকছে আবার বলছে দরকার নেই৷ কেন ডাকছে, কেন আবার অনুষ্ঠান বাতিল করছেন তা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই জানেন৷ কেউ ডাকল আর চলে যেতে হবে এটাই বা কী দরকার আছে৷’’ তবে বারবার এই সফর বাতিলের কারণ হিসাবে মমতার সরকারের আধিকারিকদের ব্যর্থতাকেই কাঠগড়ায় তুলেছেন প্রদেশ সভাপতি৷

 

----
--