মমতার সুর অধীরের গলায়

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ২০১৯, বিজেপি ফিনিশ৷ এই স্লোগান দিয়েই লোকসভা নির্বাচনের আগে বিরোধী ঐক্য গড়তে ব্যস্ত তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এবার তাঁর সেই স্লোগান শোনা গেল প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর গলায়৷

কংগ্রেস নেতাদের মধ্যে সবথেকে বেশি অধীর চৌধুরীই মমতা বিরোধী৷ রাজ্য-রাজনীতি প্রায় সবারই একথা জানা৷ মঙ্গলবার মহাজাতি সদনে ছাত্র পরিষদের ৬৭ তম প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠান ছিল৷ সেই অনুষ্ঠানে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতেই শাসক দলের সমালোচনা করেছেন তিনি৷

আরও পড়ুন: মোমোর হুমকি বীরভূমের দুই ইঞ্জিনিয়র ছাত্রকে

- Advertisement -

রাজ্যে কর্মসংস্থান নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মিথ্যা ভাষণ দিচ্ছেন বলে এদিন গুরুতর অভিযোগ তোলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন নিয়ে রাজ্য জুড়ে যে ধরনের হিংসার ঘটনা ছড়িয়ে পড়ছে তা নিয়েও রাজ্যের শাসক দলকেই দুষলেন তিনি।

বিজেপি-র বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাতে গিয়ে ইদানীং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, বিজেপি-র সবাই খারাপ নয়। মোদী-অমিত শাহরা খারাপ হলেও প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী, লালকৃষ্ণ আডবাণী, রাজনাথ সিংহ, সুষমা স্বরাজরা ভাল! এমনকী সঙ্ঘ পরিবারের মধ্যেও ভাল লোকজন রয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন মমতা।

আরও পড়ুন: পুজোয় বিজ্ঞাপনের গেট বন্ধে বিতর্ক বহরমপুরে

মমতার এই বক্তব্যকেও কটাক্ষ করেছেন অধীর৷ তিনি বলেন, “একটা আম গাছে মিষ্টি আর টক দু’রকম ফল হয় না। হয় মিষ্টি নয় টক হয়। কালীঘাটে কি এমন কোনও আম গাছ আছে যেখানে দু’রকমের আম হয়?” অধীরবাবুর কথায়, বিজেপি-র একটা মতাদর্শ রয়েছে। ধর্মনিরপেক্ষ মানুষ তা সমর্থন করে না। সুতরাং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্পষ্ট করতে হবে,নরেন্দ্র মোদীর পরিবর্তে সুষমা স্বরাজ বা রাজনাথ সিংহ প্রধানমন্ত্রী পদ প্রার্থী হলে তিনি কি সমর্থন করবেন?

আরও পড়ুন: সাত দফা দাবি নিয়ে স্মারকলিপি জমা দিলেন স্বাস্থ্যকর্মীরা

বিজেপি-তৃণমূলকে একযোগে কটাক্ষ করে অধীর চৌধুরী বলেন, দিদি-মোদীর মধ্যে একটা গট-আপ গেম চলছে৷ কিন্তু ২০১৯-এ মোদী ফিনিশ হবেই৷ কিন্তু হঠাৎ তৃণমূল নেত্রীর সুরেই তাঁর বিজেপি বিরোধীতা নিয়ে দলের অন্দরেই কৌতুহল দেখা গিয়েছে৷

আরও পড়ুন: ১৮.৫ লক্ষ টন মৎস্য উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা পূরণের পথে রাজ্য

Advertisement ---
---
-----