কেন কালো চশমা পরতেন করুণানিধি?

চেন্নাই: ডিমেএমকে প্রধান করুণানিধির প্রয়াণের সঙ্গে সঙ্গে দক্ষিণ রাজনীতিতে আরও এক ইন্দ্রপতন৷ করুণানিধির নাম বললেই যে ছবি সবার আগে চোখের সামনে ভেসে ওঠে তাতে সাদা পোশাকে হলুদ শাল জড়ানো, চোখে কালো চশমা পরিহিত এক ব্যক্তিত্বের কথাই মনে পড়ে৷

গত ৫০ বছর ধরেই চশমা ছিল তাঁর সঙ্গী৷ রাজনৈতিক থেকে সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে কলাইনারের সঙ্গে জড়িয়ে বহু গল্প৷ আবার তার চশমার সঙ্গেও জড়িয়ে রয়েছে এক অন্যরকম কাহিনি৷

পড়ুন: জরুরি অবস্থা বিরোধিতার করে বরখাস্ত হয়েছিলেন করুণানিধি

- Advertisement -

জানা যায়, ১৯৬০-এর দশকের করুণানিধি কালো চশমাটি পরা শুরু করেন৷ এক দুর্ঘটনায় তাঁর বাম চোখ ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷ এরপরেই একটি মোটা ফ্রেমের চশমা তিনি পরতে থাকেন যা তাঁর স্টাইল হয়ে যায়৷

গত বছর করুণানিধিকে তাঁর ডাক্তার উপদেশ দিয়ে বলেছিলেন চশমার ফ্রেম বদলে নিতে৷ তকন সমগ্র দেশে তাঁর জন্য উপযুক্ত ফ্রেমের খোঁজ শুরু হল৷ ৪০দিন খোঁজার পর শেষে জার্মানি থেকে আনা ফ্রেমই পছন্দ হল তাঁর৷ প্রায় ৪৬বছর ধরে যে ফ্রেম তিনি পরতেন তা বদলে নিতে হয় তাঁকে ডাক্তারের পরামর্শে৷

পড়ুন: করুণানিধির জন্য খোদ প্রধানমন্ত্রী মোদীকে ফোন করেছিলেন মমতা

গত একবছর ধরে বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি৷ বাইরে যাওয়া আসাও কমিয়ে দেন তিনি৷ তাই চশমার প্রয়োজনও ততোটা হত না৷ তাই তিনি ফ্রেম বদলে নিতে আপত্তিও করেননি৷

প্রসঙ্গত, এমজিআর-ও ডার্ক গ্লাসেস পরতেন৷ তাঁর, সমাধিতেও তাঁর টুপি এবং চশমা দেওয়া হয়৷ রাজনীতির ময়দানে এই দুই ব্যক্তিত্ব ডার্ক গ্লাসেস কে ফ্যাশনে পরিণত করেন৷

Advertisement
---