বোঝো কাণ্ড! ব্রেকআপের পর ৫লক্ষ টাকায় আগুন ধরাল প্রেমিক

ভোপাল: মধ্যপ্রদেশের সিহোর জেলায় এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে৷ জানা গিয়েছে ওই জেলার এক ফাইনান্স কোম্পানির ক্যাশিয়ার প্রেমিকার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর পাঁচ লক্ষ টাকায় আগুন ধরিয়ে দিয়েছে৷

ওই যুবক প্রেমিকাকে পাওয়ার জন্য ৬ লক্ষ ৭৪ হাজার টাকা তছরুপ করে৷ কিন্তু তাতেও প্রেমিকার মন পায়নি ওই যুবক৷ প্রেমিকা বিয়ের প্রস্তাব নাকচ করে দেয়৷ এরপরই প্রেমিক ৫ লক্ষ টাকা পুড়িয়ে ফেলে৷ এই আশ্চর্যজনক ঘটনার পর পুলিশ সেই পুড়ে যাওয়া পাঁচ লক্ষ টাকার নোট গুলি উদ্ধার করেছে৷ ওই ক্যাশিয়ারকেও গ্রেফতার করা হয়েছে৷ এছাড়াও ওই যুবকের কাছ থেকে পাওয়া গিয়েছে নগদ ৪৬ হাজার টাকা৷ তার লকার থেকে উদ্ধার হয়েছে ১লক্ষ ২৮ হাজার টাকা৷

নসিরুল্লাগঞ্জ পুলিশের সূত্রে খবর, তেহসিল অবস্থিত স্পন্দনা স্ফূর্তি ফাইনান্স কোম্পানিতে প্রাইভেট ফাইনান্স কাজ করা হয়৷ টাকা আত্মসাৎ করা ওই যুবক সেই কোম্পানিতেই ক্যাশিয়ারের চাকরি করে৷ ধৃত যুবকের নাম যিতেন্দ্র৷ সে হরদা জেলার ছৌকড়ি তহসিল খিরকিয়ার বাসিন্দা৷ জানা গিয়েছে ওই ক্যাশিয়ারের কাছেই অফিসের চাবিও থাকত৷ পুলিশ জানিয়েছে ১৭ ও ১৮ এপ্রিল রাতে ওই যুবক কোম্পানির সিন্দুক থেকে ৬ লক্ষ ৭৪ হাজার টাকা চুরি করে পালিয়ে যায়৷

- Advertisement -

জানা গিয়েছে ক্যাশিয়ার জিতেন্দ্র ওই আত্মসাৎ করা টাকা তার প্রেমিকাকে দেখানোর জন্য বেরাবল গ্রামে নিয়ে গিয়েছিল৷ প্রেমিকার বাস সেখানেই৷ তার প্রেমিকা সেই টাকা দেখে তার সঙ্গে বিয়ে করতে রাজি হয়ে যাবে এটাই ভেবেছিল যিতেন্দ্র৷ কিন্তু তার প্রেমিকার বিয়ে অন্যত্র স্থির হয়ে যাওয়ায় সে জিতেন্দ্রর সঙ্গে বিয়েতে রাজি হয়নি৷ বরং তার মুখের ওপরেই বিয়ের প্রস্তাব খারিজ করে দেয়৷

প্রেমিকা বিয়ের প্রস্তাব স্বীকার না করায় নিরাশ হয়ে ক্যাশিয়ার ৫ লক্ষ টাকায় আগুন ধরিয়ে দেয়৷ পুলিশ তার কাছ থেকে ৪৬ হাজার টাকা ক্যাশ উদ্ধার করে৷ নোটগুলি যেখানে পোড়ানো হয় সেখানে পৌঁছয় পুলিশ৷ আধ পোড়া নোটগুলি সেখান থেকে নিজেদের হেফাজতে নেয় তারা৷ এরপর জিতেন্দ্রর লকার খুলে সেখান থেকে পুলিশ ১ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা পায়৷

পুলিশ জানিয়েছে ক্যাশিয়ারের পালিয়ে যাওয়ার খবর জানাজানি হওয়ার পরেই স্পন্দনা স্ফূর্তি কোম্পানিতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে৷ এরপরই কোম্পানির ম্যানেজার নাসিরুল্লাগঞ্জ পুলিশ স্টেশনে ঘটনাটি জানায়৷ ম্যানেজারের করা অভিযোগের পর পুলিশ ক্যাশিয়ার ছৌকড়ি তহসিল খিরকিয়ার বাসিন্দা গব্বু সিং এর ছেলে জিতেন্দ্রর বিরুদ্ধে ৬লক্ষ ৭৪ হাজার টাকা আত্মসাৎ করার মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করে৷ সূত্র নারফত খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল কন্নৌদের বেরাবল গ্রামে পৌঁছয়৷ সেখান থেকেই ওই ক্যাশিয়ারকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের পরই এই ঘটনা প্রকাশ পায়৷ কিন্তু প্রেমিকা বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কেন টাকায় আগুন ধরাল ওই যুবক তা নিয়ে জিতেন্দ্রকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ৷

Advertisement ---
---
-----