পূজারা-বিরাটকে হারিয়ে চতুর্থ দিনের শেষে ধুঁকছে ভারত

লন্ডন: সিরিজ আগেই হাতছাড়া হয়েছিল সম্মানরক্ষার ম্যাচের চতুর্থ দিনে ব্যাট করতে নেমেই ব্যাটিংয়ে ভরাডুবি ‘মেন ইন ব্লু’র৷ সোমবার ৪২৩ রান তাড়া করতে নেমে প্রথম তিন ওভারে মাত্র ২ রানে তিনটি উইকেট হারায় ভারত৷ জেমস অ্যান্ডারসনের বলে মাত্র ১ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওপেনার শিখর ধাওয়ান৷

কোন রান করার আগে জিমির বলেই LBW হয়ে মাঠ ছাড়েন চেতেশ্বর পূজারা৷ রানের খাতা খুলতে পারেননি ভারত অধিনায়ক বিরাটও৷ ব্যারিস্টোর বলে আউট হয়ে শূন্য রানে মাঠ ছাড়েন ক্যাপ্টেন হট৷ লোকেশ রাহুল এবং অজিঙ্ক রাহানে লড়াই না করলে আরও খারাপ অবস্থা হতে পারত ভারতের ব্যাটিং লাইনআপের৷ চতুর্থ দিনের শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ৫৮ রান তোলে ‘মেন ইন ব্লু’৷

আরও পড়ুন: কোচবিহার জেলাপরিষদে নিয়োগ প্রশাসক

- Advertisement -

বড় রানের টার্গেট নিয়ে খেলতে নেমেই পরপর ইউকেট হারানো ভারতের হয়ে লড়াই করেন লোকেশ রাহুল৷ ৮টি চারের সাহায্যে ৫১ বলে অপরাজিত ৪৬ রান করেন রাহুল৷ তাঁকে যোগ্য সাহায্য করেন অজিঙ্ক রাহানে৷অ্যালেস্টার কুক ও জো রুটের জোড়া শতরানে আট উইকেটে ৪২৩ রান তুলে দ্বিতীয় ইনিংসে ডিক্লেয়ার্ড করে ইংল্যান্ড৷ প্রথম ইনিংসে ৪০ রানে পিছিয়ে থাকায় ৪৬৪ রানে বিশাল টার্গেট দিল রুট অ্যান্ড কোং৷

অভিষেকের মতো কেরিয়ারের শেষ টেস্টটাও ভারতের বিরুদ্ধে খেললেন কুক৷ শুরু ও শেষ টেস্টে সেঞ্চুরি করে নজির গড়েন কিংবদন্তি এই ইংরেজ ব্যাটসম্যান৷ ২০০৬ নাগপুরে ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল বাঁ-হাতি ইংরেজ ওপেনারের৷ কেরিয়ারের শেষ ইনিংসে দুরন্ত সেঞ্চুরির পর কুক থামেন ১৪৭ রানে৷ এর আগে ক্যাপ্টেন রুটের সঙ্গে ২৫৯ রানের পার্টনারশিপ গড়ে কুক-রুট৷

আরও পড়ুন: রূপান্তরকামী সায়ন্তনীই এবার এই শহরে ‘রূপং দেহি’

ইংরেজ অধিনায়ক এদিন তাঁর টেস্ট কেরিয়ারের চতুর্দশ সেঞ্চুরিটি করেন৷ শেষ পর্যন্ত ১২৫ রানে থামে রুটের লড়াই৷ কুক ও রুট দু’জনকেই প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখান অভিষেককারী হনুমা বিহারী৷ অভিষেক টেস্টে ব্যাট ও বল হাতে সফল ভারতের এই তরুণ তুর্কী৷ প্রথম ইনিংসে হাফ-সেঞ্চুরির পর বিহারী বল ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে তুলে নেন তিনটি উইকেট৷

Advertisement ---
-----