কলকাতা: ‘জড়োয়া’ এবার আসতে চলেছ ‘কলকাতায় কোহিনূর’-এ৷

হ্যাঁ ঠিকই ভাবছেন, কথা হচ্ছে টলিপাড়ার লাস্যময়ী অঙ্কিতা মজুমদারকে নিয়ে৷ যিনি ‘জড়োয়ার ঝুমকো’ সিরিয়ালে জড়োয়া চরিত্রে অভিনয় করেছেন৷

কিন্তু কেন তাকে নিয়ে হঠাৎ এত কথাবার্তা জানেন?

কারণ অঙ্কিতাকে এবার দেখা যাবে বড়পর্দায়৷ পরিচালক শান্তনু ঘোষের আগামী সাসপেন্স থ্রিলার ‘কলকাতায় কোহিনূর’ ছবিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, সব্যসাচী চক্রবর্তী, বরুণ চন্দ, ইন্দ্রানী দত্তের মতো স্টারকাস্টদের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করবেন অঙ্কিতা৷ কলকাতা ২৪x৭-এর প্রতিনিধি মৌসুমী দাসের সঙ্গে অঙ্কিতা শেয়ার করলেন তার জীবনের বেশকিছু অভিজ্ঞতা৷ চাকদহের মেয়ে অঙ্কিতা কতটা স্ট্রাগল করে নিজের জমি শক্ত করেছেন টলিপাড়ায় তাও জানালেন তিনি৷

ছবিটি নিয়ে তাঁর বিশ্বাস বিভিন্ন বয়সী দর্শকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করবে এই ছবি৷ পাশপাশি অঙ্কিতার ফ্যানেদের জন্য রয়েছে সুখবর৷ এই ছবিতে নয়া অবতারে পাওয়া যাবে তাঁকে।

১. একজন সেলিব্রিটি হওয়ার পর নিজের জীবন থেকে কি কি শিখেছো?

নিজেকে আরও কিভাবে শান্ত এবং ঠান্ডা রাখতে হয়, নিজের কাজকে আরও ভালোবাসা এবং কাজের ওপর ডিপ্লোম্যাটিক হওয়া৷

২. ‘জড়োয়া’ এবং অঙ্কিতার মধ্যে সবথেকে কমন বিষয় কি কি?

দুজনেই বেশ অন্তর্মুখী এবং আশাবাদী।

৩. আগামী কয়েকবছরে নিজের জীবন থেকে কি কি পেতে চাও?

আগামী কয়েকবছরে নিজেকে আরও ভালো অভিনেত্রী হিসাবে দেখতে চাই এবং একজন প্রযোজক হিসেবে নিজের একটি প্রযোজনা সংস্থা খুলতে চাই৷

৪. কাজের ফাঁকে বিরতি পেলে কি করেন?

বিভিন্ন ধরণের শর্ট ফিল্ম এবং সিনেমা দেখতে ভালোবাসি৷ গান শুনি এবং আমার বই পড়তেও খুব ভালোলাগে৷

৫. আজ এই জায়গায় আসতে কি কি চ্যালেঞ্জ ফেস করতে হয়েছে তোমাকে?

কেরিয়ারের প্রথমদিকে আমি আমার পরিবার থেকে কোনও সমর্থনই পাইনি৷ প্রথম প্রথম কলকাতায় নিজেকে একা লাগতো৷ কিন্তু কাজের প্রতি আমার প্যাশন এবং ডেডিকেশন আজ আমায় এখানে পৌঁছে দিতে সাহায্য করেছে৷

৬. যদি অভিনেত্রী না হতে তাহলে তুমি কোন পেশায় যেতে?

যদি আমি অ্যাক্টর না হতাম তাহলে আমি স্কুল টিচার বা নিউজ রিডার হতাম৷

৭. কিসে ভয় পাও?

আমার ভূতে বেশ ভয় লাগে, তবে ভয়কে এনজয় করি৷

৮. কখনও কোন ফ্যান তোমার জন্য কিছু করেছে বলে মনে আছে?

একটা ঘটনা বেশ মনে আছে৷ ‘জড়োয়ায় ঝুমকো’ সিরিয়ালে যখন জড়োয়া অন্তঃসত্ত্বা হয়েছিল, সেই সময় আমার এক ফ্যান আমায় সাবধান থাকার উপদেশ দিয়েছিল৷

৯. যদি অঙ্কিতার কেউ স্পেশাল অ্যাটেনশন নিতে চায় তাহলে তাকে কি করতে হবে?

প্রথমত তাকে ভালো ব্যক্তিত্বের মানুষ হতে হবে৷

----
--