Exclusive: কলকাতা ২৪x৭ এর খবরের জেরে পিছু হঠলেন রাজ্যের মন্ত্রী

মানব গুহ, কলকাতা: কলকাতা ২৪x৭ এর খবরের জেরে আপাততঃ পিছু হঠলেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। গত সোমবার এখানেই খবর প্রকাশিত হয়েছিল যে, পঞ্চায়েত ভোটের জন্য খড়দা অঞ্চলের তৃণমূলের পর্যবেক্ষক নিযুক্ত করা হয়েছে অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রের আপ্তসহায়ক সরকারী কর্মী কনৌজ দাসরায়কে। খবরের জেরে আপাততঃ শুধুমাত্র খড়দা অঞ্চলের পঞ্চায়েতগুলোর জন্য একজন তৃণমূল পর্যবেক্ষক নিয়োগের বিষয়টা স্থগিত রাখা হয়েছে।

গত সোমবারই কলকাতা ২৪x৭ এ লেখা হয়, কি ভাবে আইন ভেঙে একজন রাজ্য সরকারী কর্মীকে তৃণমূল নিজেদের দলের পঞ্চায়েত পর্যবেক্ষক নিয়োগ করছে। তাও, যে সে কর্মী নয়। খোদ অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রের আপ্তসহায়ক সরকারী কর্মী কনৌজ দাসরায়কে। আর এখানেই শুরু হয়ে যায় জোর বিতর্ক। প্রশাসনের মাথায় থাকা একজন সরকারী কর্মীকে দলের পর্যবেক্ষক নিয়োগ করে বিপাকে পড়ে যায় তৃণমূল কংগ্রেস।

আরও পড়ুন: আইন ভেঙে রাজ্য সরকারি কর্মী তৃণমূলের পঞ্চায়েত পর্যবেক্ষক

- Advertisement -

জানা যায়, অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রের আপ্তসহায়ক সরকারী কর্মী কনৌজ দাসরায়কে খড়দা অঞ্চলের পঞ্চায়েতগুলির জন্য ভোটের পর্যবেক্ষক নিয়োগ করেছেন উত্তর ২৪ পরগণা জেলার দায়িত্বে থাকা তৃণমূল নেতা ও খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বা বালুদা। ওয়েস্ট বেঙ্গল গভর্নমেন্ট সার্ভিস রুল সেকশন ৪ ও সাব সেকশন ৩ অনুযায়ী কোন সরকারী কর্মচারী সরাসরি কোন রাজনৈতিক দলের কর্মী হতে পারবেন না৷ তাহলে কি করে কনৌজ দাসরায় সরকারী কর্মী হয়েও একটি রাজনৈতিক দলের পর্যবেক্ষক হতে পারেন ? খবর প্রকাশিত হবার পরই উঠতে থাকে প্রশ্ন। শুরু হয়ে যায় জোর বিতর্ক।

সরাসরি দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছেই অভিযোগ জানানোর প্রস্তুতিও শুরু হয়ে যায়। অভিযোগ জানানো হয় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছেও। তবে, সরকারী কর্মীকে দলের পর্যবেক্ষক নিয়োগ করার সমস্ত তথ্য উড়িয়ে দেন উত্তর ২৪ পরগনার জেলা তৃণমূলের সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক৷ তিনি বলেছেন, ‘যারা এসমস্ত বলছেন তারা গাঁজা, চরস খেয়েই একথা বলছেন৷ এধরণের কোন সিদ্ধান্তই হয় নি’৷ অর্থমন্ত্রীর অন্যতম আপ্ত সহায়ক কনৌজ দাসরায় অব্শ্য এনিয়ে কোন কথা বলতে চান নি৷

আরও পড়ুন: Kolkata24x7-এর খবরের জেরে বদলাচ্ছে পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের পর্যবেক্ষক

তবে, একদিকে পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে স্বয়ং দলনেত্রীর কথা অমান্য ও অন্যদিকে রাজ্য প্রশাসনের মাথায় থাকা সরকারী কর্মীকে দলের পর্যবেক্ষক নিয়োগ করে বিতর্কের মুখে পরে যায় তৃণমূল কংগ্রেস৷ বিতর্কের মুখে পড়েন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূলের সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক৷ শেষ পর্যন্ত চাপে পরে খড়দা বিধানসভা অঞ্চলের পঞ্চায়েতগুলোর জন্য পর্যবেক্ষক নিয়োগ আপাততঃ স্থগিত রাখল তৃণমূল কংগ্রেস।

জানা গেছে, জেলার শীর্ষস্থানীয় নেতারা এই নিয়ে মার্চ মাসের শেষে ফের বৈঠকে বসবেন। সেই বৈঠকেই ঠিক হবে যে, খড়দা অঞ্চলের পঞ্চায়েতগুলির জন্য কাকে পর্যবেক্ষক নিয়োগ করা হবে। বাকি উত্তর ২৪ পরগণার বাকি বিধানসভা এলাকার পঞ্চায়েতগুলির জন্য আগের বৈঠকে ঠিক হওয়া পর্যবেক্ষকদের নামই চূড়ান্ত করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। শুধুমাত্র খড়দা অঞ্চলের জন্য অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রের আপ্তসহায়ক সরকারী কর্মী কনৌজ দাসরায়কে নিয়োগ করা নিয়ে বিতর্ক হওয়ায়, এই বিষয়টা আপাততঃ স্থগিত রাখা হল বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন: অগষ্টে পঞ্চায়েত ভোটের জল্পনা উস্কে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

কনৌজ দাসরায় ছাড়া গত রবিবারের বৈঠকে ঠিক হওয়া পর্যবেক্ষকদের ইতিমধ্যেই তাঁদের দায়িত্বের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে দলের তরফ থেকে। জেলা পার্টি অফিস থেকে ইতিমধ্যেই চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে পর্যবেক্ষকদের তাদের নিয়োগের বিষয়টা। তবে খড়দা বিধানসভার অন্তর্গত পঞ্চায়েতগুলোর জন্য আপাততঃ পর্যবেক্ষক নিয়োগ করা হল না। এই পঞ্চায়েতগুলোর জন্য পর্যবেক্ষক নিয়োগ করে কোন চিঠি ইস্যু হয় নি।

জানা গেছে, এমাসের শেষের দিকে খড়দা অঞ্চলের পঞ্চায়েতগুলোর জন্য কাকে পর্যবেক্ষক নিয়োগ করা হবে, তা নিয়ে জরুরী বৈঠক হবে। সেখানেই ঠিক হবে নতুন পর্যবেক্ষকের নাম। তবে, খাদ্যমন্ত্রী ও জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের খেয়ালখুশি মত, আইন ভেঙে কোন সরকারী কর্মীকে যে নিয়োগ করা হবে না তা দলের তরফ থেকে পরিস্কার করে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement ---
-----