টোকাটুকি নিয়ে শর্ট ফিল্ম বানিয়ে সাসপেন্ড সাত ছাত্র

বাসুদেব ঘোষ, সিউড়ি: পরীক্ষা চলছে৷ পাশাপাশি কয়েকটি বেঞ্চে পরীক্ষা দিচ্ছে কয়েকজন ছাত্র৷ পরীক্ষা চলাকালীনই এ ওর খাতা দেখছে৷ আবার কেউ পকেট থেকে টুকলি বের করে টুকে যাচ্ছে৷

শিক্ষকের নজর পড়তেই সবাই চুপ৷ এর পর শিক্ষক ঘুমিয়ে পড়তেই আবার স্বমহিমায় ফেরে ছাত্ররা৷ এবার পেরিয়ে যায় আরও একধাপ৷ শিক্ষকের টেবিল থেকে তুলে নিয়ে আসে বই৷ তার পর সেই বই দেখেই শুরু হয় গণ টোকাটুকি৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: হাইকোর্টের নির্দেশে পঞ্চায়েতে স্থগিতাদেশ

এবারও তাল কাটে শিক্ষক এসে যাওয়ায়৷ ধরা পড়ে গিয়ে ছাত্রের তো তখন ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি অবস্থা৷ কী করবে বুঝতে পারছে না৷ এটাই ক্লাইম্যাক্স৷ তার পর নিজেকে বাঁচাতে হুলস্থুল কাণ্ড বাঁধিয়ে বসে ওই ছাত্র৷

আরও পড়ুন: মমতার বাড়িতে বিজেপির আমন্ত্রণপত্র

কী সেই হুলস্থুল কাণ্ড, তা জানতে বীরভূম জেলা স্কুলের ছাত্রদের বানানো শর্ট ফিল্মটি দেখতেই হবে৷ নিচে দেওয়া রইল সেই শর্ট ফিল্মের লিঙ্ক,

কিন্তু স্কুলের মধ্যেই এই শর্ট ফিল্ম বানাতে গিয়ে বিপাকে পড়েছে ওই সাত ছাত্র৷ শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে তাদের বরখাস্ত করা হয়েছে৷ স্কুলের প্রধান শিক্ষক চন্দন সাহা জানান, এটি শুধু একটি অপরাধ নয়। দীর্ঘদিন ধরে বেশকিছু ছাত্র স্কুলের নিয়ম মানছিল না৷ তাছাড়া ছবি আপলোড করে স্কুলের বেশ কিছু বিধি ভেঙেছে তারা৷ তাই স্কুলের শিক্ষকদের সহমতে তাদের সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘সরকার তো গয়ি, হাম হার রহে হ্যায়’, প্রচার সেরে বলেছিলেন বাজপেয়ী

আরও পড়ুন: বিজেপির মনোনীত প্রধানকে অপহরণে অভিযুক্ত তৃণমূল

বীরভূম জেলা স্কুলের পরিচালন সমিতির সভাপতি আবার জেলাশাসক৷ তিনি মানে বীরভূমের জেলাশাসক মৌমিতা গোদারা বসু বলেন, ‘‘ছাত্ররা ভুল করতেই পারে৷ তাদের অপরাধ বিচার করে দেখা উচিত। যদিও এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক আমাকে কিছুই জানাননি৷’’

আরও পড়ুন: চোকসিকে গ্রেফতার করার জন্য প্রয়োজন নেই ইন্টারপোল নোটিশের

Advertisement
---