স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বিরোধী জোটের নিয়ম অনুযায়ী লোকসভা ভোটের ফলাফলের পরেই ঠিক করা হবে প্রধানমন্ত্রীর নাম৷ অভিযোগ, ডিএমকে সভাপতি এম কে স্তালিন সেই নিয়মের অন্যথা করেন৷

রবিবার চেন্নাইয়ে কিংবদন্তি তামিল নেতা তথা পিতা করুণানিধির এক মূর্তি উন্মোচনে গিয়ে স্তালিন রাহুল গান্ধীর নাম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রস্তাব করেন৷ আর এতেই বেজায় চটেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেস৷ কলকাতায় তৃণমূল নেতারাও ক্ষুব্ধ৷ যদিও এই বিষয়ে দলনেত্রী মমতা এখনও মুখ খোলেননি৷

বিষয়টিকে ভালো ভাবে নেয়নি অন্যান্য অ-বিজেপি রাজনৈতিক দলগুলিও৷ সমাজবাদী পার্টি, বহুজন সমাজবাদী পার্টি, তেলেগু দেশম পার্টি ও এনসিপি সবার তরফেই একযোগে এর বিরোধিতা করেছে৷ চেন্নাইতে করুণানিধির মূর্তি উন্মোচন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, সোনিয়া গান্ধী, টিডিপি নেতা তথা অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু, কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী সহ অন্যান্যরা৷

পড়ুন: আমি হিন্দুদের মরার কথা বলি না মারার কথা বলি: সাধ্বী সরস্বতী

শিয়রে লোকসভা নির্বাচন৷ ২০১৯-এর এই নির্বাচনে বিজেপিকে রুখতে মরিয়া অ-বিজেপি দলগুলি৷ সেই লক্ষেই লোকসভায় জোটবদ্ধ হওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে তাদের তরফে৷ এই প্রত্যাশাকে সফল করতে বেশ কয়েকবার দিল্লিতে বৈঠকে বসেছে বিভিন্ন দল৷

পড়ুন: কংগ্রেসের শপথ অনুষ্ঠানে দলের দুই সাংসদকে পাঠালেন মমতা

ফাইল ছবি

প্রতিবারই তার মধ্যমণি হয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও৷ তাঁর ডাকা ব্রিগেড জনসভাতেও বিরোধী নেতা-মন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীদের কলকাতায় আসার কথা৷ এরই মাঝে ডিএমকে নেতা স্তালিন যেভাবে রাহুল গান্ধীকে বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রীর মুখ হিসেবে তুলে ধরায় বেড়েছে অস্বস্তি৷ যদিও মমতা নিজে জানিয়েছেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীর দৌড়ে থাকতে চান না৷

পড়ুন: বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন তৃণমূল নেতাকে

ফাইল ছবি

জোট বিরোধী সরকার গড়ার ক্ষেত্রে জোরালো আলোচনা হয়৷ কিন্তু স্তালিনের এই ধরণের মন্তব্য জোটের পক্ষে ক্ষতিকারক বলেই মনে করছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ তৃণমূলের এক শীর্ষ নেতা জানিয়েছেন, ‘‘দুর্নীতিগ্রস্ত বিজেপিকে রুখতেই মূলত আমাদের নেত্রী জোট বাঁধার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷ আর বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেসের যা প্রভাব তাতে বিরোধী জোটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে না ডেকে উপায় নেই৷ সেখানে জোটে থেকে বিশেষ কারোর হয়ে সুপারিশ করার বিষয়টি সমর্থন করা যায় না৷’’

পড়ুন: বাংলায় রথ টানতে ফের হাইকোর্টের দ্বারস্থ মুকুল-দিলীপরা

 

রবিবার চেন্নাইয়ে ডিএমকে নেতা স্তালিনের রাহুল-প্রীতি স্পষ্ট হয়েছে তাঁর বক্তব্যেই৷ স্তালিন এদিন রাহুল গান্ধীর সমর্থনে বলেন, “প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য তামিলনাড়ু থেকে আমরা রাহুল গান্ধীর নাম প্রস্তাব করছি। তাঁর প্রচেষ্টাকে সফল করব৷’’

--
----
--