শেষকৃত্যে বিশৃঙ্খলা, হুড়োহুড়িতে পদপিষ্ট হয়ে মৃত ২

চেন্নাই: লক্ষাধিক মানুষের সমাগম রাজাজি হলের বাইরে৷ সমাধিস্থ হবেন প্রিয় নেতা৷ সেই সমাগমে আচমকাই বিশৃঙ্খলা শুরু হয়৷ লক্ষাধিক মানুষের হুড়োহুড়িতে পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল দুজনের৷ আহত হয়েছেন ৪০ জনেরও বেশি মানুষ৷

শেষবারের মত এম করুণানিধিকে দেখতে ও তাঁর শেষ যাত্রায় অংশ নিতে জড়ো হয়েছেন লক্ষাধিক মানুষ৷ সেখানেই ধাক্কাধাক্কিতে পড়ে যান বছর ষাটেকের এক মহিলা৷ তিনি এমজিআর নগরের বাসিন্দা বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে তাঁর৷

আরেক ৬০ বছর বয়েসী এক ব্যক্তিও পদপিষ্ট হয়ে মারা গিয়েছেন বলে খবর৷ তবে তাঁর পরিচয় জানা যায়নি৷ জনসমুদ্রকে সামলাতে পুলিশকে লাঠিচার্জ করতে হয় বলে জানা গিয়েছে৷

- Advertisement -

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর পুলিশ ও জনতার মধ্যে হাতাহাতিও হয়৷ রাজাজি হলের সেই জনসমাগমকে সামলাতে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়৷

কিংবদন্তি এই রাজনীতিকের শেষ যাত্রায় সামিল হতে লাখে লাখে মানুষ জড় হয়েছেন৷ এদের মধ্যে যেমন আছেন ডিএমকে (দ্রাবিড় মুনেত্রা কাজাঘাম) সমর্থকরা, তেমনই আছেন প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলের বহু মানুষ৷ আছেন রাজনীতি থেকে দূরে থাকা লক্ষাধিক জনগণ৷ আসলে, ডিএমকে, এডিএমকে, পিএমকে, এমএমকে এমনই সব তামিল রাজনৈতিক দলের মধ্যেই কলাইগনার জনপ্রিয়৷ যে তামিল আবেগকে ধরে রেখে সিএন আন্নাদুরাইয়ের শিষ্যরা তামিল রাজনীতিতে দাপিয়ে বেড়িয়েছিলেন৷ সেই প্রজন্মের শেষ কিংবদন্তি চলে গিয়েছেন ৭ অগাস্ট-মঙ্গলবার৷

শেষকৃত্যে যোগ দিতে রাজাজি হলে জড়ো হন একের পর এক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব৷ উপস্থিত হন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ভিসিকে প্রেসিডেন্ট থল থিরুমাভালাভান, দীপা জয়াকুমার কেরলের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী উমেন চান্ডি, তামিলনাড়ুর রাজ্যপাল বনওয়ারিলাল পুরোহিত, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী পালাননিস্বামী, তামিলনাড়ুর ডেপুটি সিএম ও পন্নীরসেলভম, টিটিভি দিনাকরণ, রজনীকান্ত, ধনুশ প্রমুখ ব্যক্তিত্ব৷

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬.৪০ নাগাদই সেই দুঃখের খবর পৌঁছে যায় গোটা দেশবাসীর কাছে৷ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন কলাইনার৷ ৫০ বছর ধরে যে ডিএমকে-কে এক ছাতার তলায় পরিচালনা করে এসেছেন তিনি, সেই দল হঠাৎই অভিভাবকহীন হয়ে পড়ে৷

Advertisement ---
---
-----