‘মহিলাদের বারে বসে মদ খেতে ডাকতেন..’ মোদীকে অভিযোগ বিমানসেবিকার

নয়াদিল্লি: বছরের পর বছর সিনিয়রের হাতে যৌন হেনস্থার শিকার এয়ার হস্টেস। কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। অবশেষে সরকারের দ্বারস্থ হলেন এয়ার ইন্ডিয়ার এয়ার হস্টেস। সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে মেনশন করে ট্যুইট করে অভিযোগ জানিয়েছেন ওই এয়ার হস্টেস। তাঁর ট্যুইটের উত্তরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সুরেশ প্রভু জানিয়েছেন যে তিনি এব্যাপারে এয়ার ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলছেন।

গত ২৫ মে সুরেশ প্রভুকে অভিযোগ জানান ওই বিমানসেবিকা। তিনি জানান যে তিনি একজন এয়ার হস্টেস এবং সিঙ্গল মাদারও বটে। গত ছ’বছর ধরে একজন সিনিয়র এক্সিকিউটিভ তাঁকে যৌন নির্যাতন চালাচ্ছে। দেখা করে সেই ব্যক্তির নাম মন্ত্রীকে জানাবেন বলেও উল্লেখ করেন এয়ার হস্টেস। বিভিন্ন বারে ডেকে মহিলা কর্মীদের তাঁর সঙ্গে বসে মদ খাওয়ার আমন্ত্রণও জানাতেন। সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় অভিযোগকারিণীকে প্রাপ্য থেকে বঞ্চিত করেন।

বিমানসেবিকার কথায়, ‘‌উনি একজন শিকারির মতো আমাকে আক্রমণ করতেন। আমার জীবন অতিষ্ঠ করে তুলেছিলেন। নোংরা প্রস্তাব ও কুরুচিকর কথাবার্তা বলতেন। মাঝেমাঝে আত্মহত্যা করতে ইচ্ছা করত। কর্মক্ষেত্রেও হেনস্থা করা হতো। উওমেন্স সেলে অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। তাই সরকারের শরণাপন্ন হতে হল।

- Advertisement -

গত সেপ্টেম্বরে এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানান তিনি। চেয়ারম্যানকে চিঠিও লেখেন। কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। অবশেষে এফআইআর করেন তিনি। এয়ার ইন্ডিয়ার উইমেন সেলও এব্যাপারে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগে জানান তিনি।

Advertisement ---
---
-----