ইতালীয় তরুণীকে হেনস্তার ঘটনায় সাফাই দিল এয়ার ইন্ডিয়া

হায়দরাবাদ: দায় এড়াল এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ৷ কিছুদিন আগেই উড়ান সংস্থাটির বিরুদ্ধে শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগ আনে এক ইতালিয়ান তরুণী (ওলি ইজি)৷ কিন্তু, অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন বলে সাফ জানিয়ে দেয় উড়ান সংস্থাটি৷

জানা গিয়েছে, তরুণী পেশায় একজন ডিজে (ডিস্কো জকি)৷ ইজি জানিয়েছেন, তিনি হায়দরাবাদ বেড়াতে এসেছিলেন৷ গত ১৯ আগস্ট ইন্দিরা গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের (হায়দরাবাদ) ডিপার্চার এরিয়াতে এয়ার ইন্ডিয়ার এক কর্মী তাঁকে শারীরিক নিগ্রহ করেন৷

আরও পড়ুন: এক ফোনেই ভেস্তে গেল গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন

ওই তরুণীর দাবি, ঘটনার পর তিনি অভিযোগ দায়ের করতে যান৷ সেখানেও পুলিশের থেকে তিনি কোনও সহযোগিতা পাননি৷ এরপর পুরো ঘটনার বর্ণনা করে ফেসবুকে একটি ভিডিও পোস্ট করেন৷ ভিডিওতে তিনি বলেন, এয়ার ইন্ডিয়ার উড়ানে যাত্রা করছিলাম৷ কিন্তু, ফ্লাইট প্রায় নয় ঘন্টা দেরীতে চলছিল৷ এরপর, ফ্লাইটের সঠিক সময় জানতে গেলে কোনও সঠিক উত্তর দেয়নি সংস্থার কর্মীরা৷ এয়ার ইন্ডিয়ার কাউন্টারে গিয়ে জিজ্ঞেস করেও মেলেনি কোনও জবাব৷

আরও পড়ুন: পরকীয়ায় লিপ্ত স্ত্রীকে খুন করে আত্মঘাতী স্বামী

কাউন্টারে থাকা কর্মীর বিরুদ্ধে কেস ফাইল করার ভয় দেখান ইজি৷ তখনই মেজাজ হারান ওই কর্মী এবং চড় মারেন ইতালিয়ান ডিজেকে৷ এখানেই শেষ নয়৷ এয়ারপোর্ট অধীনস্থ পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ জানাতে গেলে ইন্সপেক্টরের অনুপস্থিতির কারণে গ্রাহ্য করা হয়নি তাঁর অভিযোগটিকে৷

আরও পড়ুন: জাপানি এনসেফেলাইটিসে মৃত আরও এক

আরও পড়ুন: জাপানি এনসেফেলাইটিসে মৃত আরও এক

অন্যদিকে, এয়ারপোর্ট সিকিওরিটির থেকেও মেলেনি সাহায্য৷ শুধু তাই নয়, এয়ারপোর্ট কর্মীদের পরিহাসের পাত্র হয়ে ওঠেন তরুণী৷ তবে, সমস্ত অভিযোগকেই অস্বীকার করে কর্তৃপক্ষ৷ সংস্থা জানিয়েছে, ফ্লাইট দেরিতে ছাড়ার কারণেই বিক্ষুব্ধ হয়েছিলেন ওই তরুণী (ইজি)৷

আরও পড়ুন: জুট মিল কর্মী খুনের প্রতিবাদে অবস্থান-বিক্ষোভে পরিবারের সদস্যরা

----
-----