কর্ণাটক অংকে মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবি ওয়াইসির

হায়দরাবাদ: কর্ণাটকে জোট সরকারের মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন এইচডি কুমারস্বামী। সেই পথে হেঁটেই মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবি করল এআইএমআইএম।

দলের পক্ষ থেকে তেলেঙ্গানা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার দানি জানিয়েছেন নেতা আকবরুদ্দিন ওয়াইসি। তিনি প্রকাশ্যে জানিয়েছেন তাঁর মুখ্যমন্ত্রী হয়ার অভিপ্রায়ের কথা। করতালি এবং স্লোগানে পালটা প্রতিবার্তা দিয়েছে তাঁর অনুগামীরা।

আরও পড়ুন- সাম্প্রদায়িক AIMIM নিষিদ্ধ করার দাবিতে পিটিশন দায়ের

- Advertisement -

নিজামের শহর হায়দরাবাদের সাংসদ এআইএমআইএম নেতা আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। তিনি আবার সম্পর্কে আকবরুদ্দিনের ভাই। হায়দরাবাদ এবং তেলেঙ্গানা জুড়ে বিভিন্ন জায়গায় মজবুত সংগঠন রয়েছে এআইএমআইএম-এর। সাধারণত মুসলিম সম্প্রদায়ের ভোটের উপরে ভিত্তি করেই চলছে এআইএমআইএম।

যদিও সমগ্র রাজ্য দখল করার মতো অবস্থায় নেই এই ওয়াইসি ভাইদের পার্টি। কারণ ১১৯ আসনের তেলেঙ্গানা বিধানসভায় এআইএমআইএম-এর সদস্য সংখ্যা মাত্র সাত। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে সেই সংখ্যা ৬০ হওয়া কী সম্ভব? এই বিষয়টি পরিষ্কার করে দিয়েছেন আকবরুদ্দিন। তিনি বলেছেন, “কম সংখ্যক বিধায়ক নিয়ে এইচডি কুমারস্বামী বিধায়ক হতে পারলে আমি কেন পারব না?”

এইচ ডি কুমারস্বামী

চলতি বছরের শেষের দিকে বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে তেলেঙ্গানায়। এই মুহূর্তে ওই রাজ্যের শাসন ক্ষমতায় রয়েছে তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতি বা টিআরএস। ওই দলের প্রধান কেসিআর রয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর পদে। তাঁর বিরুদ্ধে জোট করতে চলেছে কংগ্রেস, বাম সহ একাধিক অবিজেপি দল। যদিও এআইএমআইএম সেই জোটে নেই। এআইএমআইএম-কে বন্ধুত্বপূর্ণ পার্টি বলে মন্তব্য করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী কেসিআর।

আরও পড়ুন- মমতার দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে বাংলায় বাড়ছে আসাদুদ্দিনের AIMIM

কিন্তু তারপরেই ঘটেছে বিপত্তি। টানাটানি শুরু হয়েছে গদি নিয়েই। আকবরুদ্দিনের ওই মন্তব্য প্রকাশ্যে এসেছে মুখ্যমন্ত্রী কেসিআর-র একটি মন্তব্যের পরে। তিনি বলেছিলেন, “নভেম্বরে ভোট হবে আর ডিসেম্বরে আমি মুখ্যমন্ত্রী হব।” সেই প্রসঙ্গ উল্লেখ করে আকবরুদ্দিন বলেন, “নভেম্বরে ভোট শেষ হোক, ডিসেম্বরে আমিও মুখ্যমন্ত্রী হতে পারি। কে কে আমায় সমর্থন করবে?” বিষয়টি যে সহজ নয় এবং জোট অঙ্কই যে ভরসা তাও অবশ্য বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি।

Advertisement
---