কলকাতা: মাঠে আমনা ম্যাজিক! আর মাঠের বাইরে লাল-হলুদ কর্তাদের স্প্যানিশ চমক৷

একজন গোল করলেন এবং গোল করালেন৷ তাঁর কাঁধে ভর করেই এরিয়ান্সের বিরুদ্ধে তিন পয়েন্ট তুলে নিয়ে লিগের শীর্ষস্থানে উঠে এল ইস্টবেঙ্গল৷ চার ম্যাচে তিনটে জয় একটা ড্র, দশ পয়েন্ট নিয়ে লিগের প্রথম পর্বে লেটার মার্কস নিয়ে এগিয়ে চলেছে সুভাষের লাল-হলুদ আর্মি৷ কিন্তু স্প্যানিশ কোচ আলেজান্দ্রো মেনেনদেজের নাম প্রকাশে এনে সুভাষকে বার্তা দিলেন লাল-হলুদ কর্তারা৷

Advertisement

এর মধ্যেই লাল-হলুদ সমর্থকদের জন্য ভালো খবর৷ এবার স্প্যানিশ কোচ পা রাখতে চলেছে পদ্মাপাড়ের ক্লাবে৷ ৫২ বছরের আলেজান্দ্রোর সঙ্গে কথাবার্তা অনেকটাই এগিয়েছে লাল-হলুদ কর্তাদের। ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে শনিবার এরিয়ান্স ম্যাচের পর ক্লাব তাবুতে উপস্থিত সাংবাদিকদের।

রিয়াল মাদ্রিদের যুব দলকে কোচিং করিয়েছেন আলেজান্দ্রো। এছাড়াও একাধিক ক্লাবের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। তবে এই মুহূর্তে মেনেনদেজ বুর্গোজ টিমের দায়িত্বে। নতুন কোচ এলে সুভাষ ভৌমিকের কি তাহলে ছুটি হয়ে যায়? বাস্তব রায়ের কী হবে? শোনা যাচ্ছে, আলেজান্দ্রো এলে নিয়ে আসবেন তাঁর দুই সহকারীকে৷ সেক্ষেত্রে সুভাষ ও বাস্তবের ছুটি হয়ে যাওয়াটা প্রাসঙ্গিক!

পাশাপাশি নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার মহম্মদ গাম্বোর নাম জুড়তে চলেছে ইস্টবেঙ্গলের বিদেশির তালিকায়। জাতীয় দলের হয়ে সাতটি ম্যাচ খেলা এই দীর্ঘদেহী স্ট্রাইকারের সঙ্গে কথাবার্তা প্রায় পাকা হয়ে গিয়েছে লাল-হলুদের। দেশের হয়ে একটি এবং ক্লাব ফুটবলে কানো পিলারস ক্লাবের হয়ে ৭০টি গোল রয়েছে গাম্বোর।

লিগের শুরুতে অবশ্য ম্যাজিশিয়ান আমনাকে প্রথম মিনিট থেকেই খেলাতে নারাজ ছিলেন লাল-হলুদের টিডি সুভাষ৷ আই লিগের কথা মাথায় রেখেই সিরিয়ান বিদেশিকে রিজার্ভে রেখেছিলেন ময়দানের পোড় খাওয়া কোচ৷ কিন্তু কাস্টমসের বিরুদ্ধে ম্যাচ ড্র হওয়ার পর গ্যালারিতে ‘গো-ব্যাক সুভাষ’ ধ্বনি ওঠে৷ সেই সঙ্গে কর্তাদের চাপে নিজের অবস্থান থেকে সরে আসেন সুভাষ৷ আর আলেসান্দ্রো এলে তাঁকে সম্ভবত একেবারেই সরে যেতে হবে৷

----
--