পারিবারিক লড়াইয়ে দাদাকে হারালেন ছোট ভাই

জয়ের পর দাদা মিসচাকে আলিঙ্গন আলেকজান্ডার জেরেভের৷ ছবি-সিটি ওপেন টুইটার

ওয়াশিংটন: চোখে-মুখে তৃপ্তির ছাপ স্পষ্ট৷ ঠোঁটের কোণে চওড়া হাসি দেখে বোঝার উপয় নেই সবে মাত্র পেশাদার সার্কিটের কোনও ম্যাচ হেরে উঠেছেন৷ তাও আবার স্ট্রেট সেটে৷ সিটি ওপেনের প্রি-কোয়ার্টারের পরাজিত হওয়ার পর কোনও আক্ষেপ নেই ক’দিন পরেই ৩১’এ পা দিতে চলা মিসচা জেরেভের৷

অন্যদিকে, এটিপি সার্কিটে ম্যাচের শেষে সৌজন্য করমর্দন বাধ্যতামূলক হলেও এমন অন্তরঙ্গ আলিঙ্গন করতে কদাচিৎই দেখা যায় কোনও পেশাদার টেনিস তারকাকে৷ ২১ বছরের আলেকজান্ডার সিটি ওপেনের শেষ আটে জায়গা করে নেওয়ার পর প্রতিপক্ষকে যেভাবে জড়িয়ে ধরলেন, তেমনটা খুব বেশি চখে পড়ে না টেনিসমহলে৷

আরও পড়ুন: রাশিয়ান ওপেন চ্যাম্পিয়ন ভারতীয় তারকা

আসলে সিটি ওপেনের শেষ ষোলোয় শীর্ষবাছাই আলেকজান্ডারের প্রতিপক্ষ ছিলেন তাঁর দাদা মিসচা জেরেভ৷ এতদিন একসঙ্গে খেলে বড় হয়ে ওঠা দুই জেরেভ ভাই এই প্রথমবার কোনও এটিপি টুর্মামেন্টের মূলপর্বে একে অপরের বিরুদ্ধে কোর্টে নামলেন৷ বলাবাহুল্য, বিশ্বের তিন নম্বর আলেকজান্ডার ৬-৩, ৭-৫ সেটে পরাজিত করেন দাদা মিসচাকে৷

এর আগে দু’বার মাত্র প্রতিযোগিতামূলক টেনিসে একে এপরের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমেছিলেন দুই জেরেভ ভাই৷ তবে দি’টিই ছিল যোগ্যতা অর্জন পর্বের ম্যাচ৷ কখনও মূলপর্বে পারস্পরিক লড়াইয়ে নামেননি মিসচা ও আলেকজান্ডার৷ শেষবার তারা কোর্টের দু’প্রান্তে দাঁড়িয়েছিলেন ২০১৪ সালে৷ মাঝের চার বছরে অনুশীলন ছাড়া একসঙ্গে কোর্টে নামার কথা ভাবেননি দুই জার্মান তারকা৷

আরও পড়ুন: কেরিয়ারে সবচেয়ে খারাপ হার সেরেনার

ম্যাচের পর রীতিমতো আবেরপ্রবণ দেখায় দুই ভাইকেই৷ মিসচা বলেন, ‘টস করার সময় অদ্ভূত একটা অনুভূতি হচ্ছিল৷ কষ্ট করে চোখের জল সামলেছিলাম৷ এটা আমার কাছে কোনও গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনাল খেলার থেক কম খুশির নয়৷ আমাদের ছোট কোর্টে ছেলেবেলা থেকে নিজেদের বিরুদ্ধে টেনিস খেলে বড় হয়েছি৷ কোনও এটিপি টুর্নামেন্টে এমন অভিজ্ঞতা হতে পারে, ভাবিনি৷ জীবনের একটা স্মরণীয় দিন৷ অসাধারণ একটা ম্যাচ৷’

আলেকজান্ডারও নিজের আবেগ লুকিয়ে রাখেননি৷ জয়ের পর কোর্টেই বোঝা গিয়েছে দুই ভাইয়ের অন্তরঙ্গতা৷ ম্যাচ শেষে আলেকজান্ডার বলেন, ‘দারুণ উপভোগ করেছি ম্যাচটা৷ দারুণ লাগছে দাদার বিরুদ্ধে এমন একটা ম্যাচ খেলতে পেরে৷’

আরও পড়ুন: মারিনের কাছে আত্মসমর্পণ সাইনার

যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের এই প্রস্তুতি টুর্নামেন্টে আলেকজান্ডার জেরেভ খেলতে নেমেছেন ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসাবে৷ কোয়ার্টার ফাইনালে তিনি কোর্টে নামবেন সপ্তম বাছাই কেই নিশিকোরির বিরুদ্ধে৷ অপর প্রি-কোয়ার্টারে নিশিকোরি হারিয়ে দিয়েছেন কানাডিয়ান তরুণ ডেনিস শাপোভালোভকে৷

----
-----