ফাইল ছবি

সোয়েতা ভট্টাচার্য, কলকাতা : আলিপুর চিড়িয়াখানায় বংশবৃদ্ধি করতে এবার উত্তরবঙ্গের বেঙ্গল সাফারি পার্ক থেকে ফেরানো হচ্ছে স্নেহাশিস নামে পুরুষ বাঘটিকে৷ ২০১৬ সালে স্নেহাশিস কে উত্তরবঙ্গের সাফারি পার্কে পাঠানো হয়েছিল৷ তারপর থেকেই তার প্রেমিকা পায়েলের সঙ্গে আর দেখা হয়নি পায়েলের৷ তবে চিড়িয়াখানার এই সিদ্ধান্ত আবার পায়েল আর স্নেহাশিসকে এক করে দেবে৷

তবে জানা গিয়েছে, তাদের এই পুনর্মিলন স্থায়ী হবে না৷ মেটিং-এর পরে স্নেহাশিসকে ফের উত্তরবঙ্গের বেঙ্গল সাফারি পার্কে ফিরিয়া আনা হবে৷ ২০১৬ সালে ঠিক একই উদ্দেশ্যে স্নেহাশিসকে অলিপুর চিড়্য়াখানা থেকে উত্তরবঙ্গ নিয়ে যাওয়া হয়৷ তবে তার সঙ্গে পাঠানো হয়েছিল একটি বাঘিনিকেও৷ এখন সেখানে দুটি বাঘ রয়েছে৷ তারা স্নেহাশিসের সন্তান বলে জানা যাচ্ছে৷ আলিপুর চিড়িয়াখানায় বাঘের জন্ম নিয়ে এই বিশেষ উদ্যোগ নিচ্ছে আলিপুর চিড়িয়াখানা৷ কর্তৃপক্ষ৷

পড়ুন: Kolkata24x7সংবাদের জের, ‘ক্রীতদাস’ শ্রমিকদের ফেরাতে উদ্যোগ দূতাবাসের

আলিপুর চিড়িয়াখানার অধিকর্তা আশীষ কুমার সামন্ত জানান, ”চিড়িয়াখানায় এখন যে বাঘগুলি রয়েছে তাদের মধ্যে একজনেরও এখন প্রজনন ক্ষমতা নেই৷ সেই কারনেই স্নেহাশীসকে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা৷ প্রজননের পর তাকে আবার ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হবে৷”

আলিপুর চিড়িয়াখানায় এখন মোট বাঘের সংখ্যা সাত৷ তার মধ্যে ৪ পুরুষ ও ৩ জন মহিলা৷ তবে তাদের বয়েস ১০ পেরিয়ে যাওয়ার ফলে তাদের প্রজনন ক্ষমতা কমে গিয়েছে৷ স্নেহাশীষ যেহেতু এই চিড়িয়াখানাতেই ছিল সেক্ষেত্রে এই বাঘটির এখানে এসে মানিয়ে নিতে অসুবিধে হবে না৷

পড়ুন: ছটে সরোবরের দূষণের দায়িত্ব নিয়ে পরিবেশ দফতরেই লাগল ‘ঝগড়া’

আলিপুর চিড়িয়াখানায় পায়েলসহ রানি ও রুপা নামে বাঘিনি রয়েছে৷ তবে তাদের মধ্যে একমাত্র পায়েল প্রজননক্ষম৷ তাই স্নেহাশিসের সঙ্গে পায়েলের মেটিং করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে চিড়িয়াখানার কর্তৃপক্ষ৷ পায়েলের এখন বয়স ছয় বছর৷ আলিপুর চিড়িয়াখানায় যে সময় স্নেহাশিস ছিল তখন পায়েলের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব যথেষ্ট গভীর ছিল৷ তাই তাদের আগে থেকে পরিচিতি থাকার ফলে অনেকটাই সুবিধে হবে৷

আলিপুর চিড়িয়াখানা থেকে যে সময় স্নেহাশিসকে উত্তরবঙ্গের সাফারি পার্কে নিয়ে যাওয়া হয় ঠিক সেই সময় রৌরকেল্লা থেকে আরও একটি বাঘ নিয়ে আসা হয়েছিল সেখানে৷ চিড়িয়াখানার এক আধিকারিক বলেন, ” স্নেহাশিস আলিপুরে আগে ছিল ফলে আমরা মেটিং-এর জন্য তাকেই বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷ পাশাপাশি স্নেহাশিস ও পায়েলের আগে থেকে পরিচিতিও রয়েছে৷”