আসানসোলে তৃণমূলে যোগ ২৫০ জন বিজেপি কর্মীর

প্রতীকী ছবি

আসানসোল: ঘাস ছেড়ে পদ্ম ফুল হাতে নিয়েছেন একদা তৃণমুলের দুই নম্বর ব্যক্তি মুকুল রায়। এরই মাঝে আসানসোলে তৃণমুল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছে বিজেপির প্রায় ২৫০ কর্মী। যা নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত তৃণমূল শিবির।

মুকুল রায়ের ফুল তথা দলবদলকে গুরুত্ব দিতে নারাজ তৃণমূল নেতৃত্ব। যদিও এই ঘটনাকে তৃণমূল কংগ্রেসের উপর বিজেপির সার্জিক্যাল স্ট্রাইক বলে দাবি করেছেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেছেন, “মুকুল রায়কে বিজেপিতে নিয়ে এসে তৃণমূলের উপর সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালিয়েছি। কিছুদিন পরে তৃণমূল এর ফল বুঝতে পারবে।”

আরও পড়ুন- মুকুলের ফুল বদলের পরেই তৃণমূল ভাঙানো শুরু অনুগামীদের

- Advertisement -

আসানসোলে বিজেপি কর্মীদের তৃণমূলে নাম লেখানোর ঘটনাকে মুকুল রায়ের পালটা বলে দাবি করছে স্থানীয় নেতৃত্ব। তাদের মতে, ‘একজন মুকুলের বদলে ২৫০ জন আমাদের মধ্যে এসেছে।’ যদিও মুকুল রায়ের আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগদানের আগেই আসানসোলে দলবদল ঘটেছে। শুক্রবার দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে গেরুয়া নামাবলী গায়ে জড়িয়েছিলেন মুকুল। তার আগের দিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবারে আসানসোলে প্রায় ২৫০ জন বিজেপি কর্মী। তৃণমূলের পত্রাকাতলে আসেন।

আসানসোল পৌরনিগমের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত মহুয়া ডাঙাল এলাকায় আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপি থেকে আগত কর্মীরা তৃণমুলের পতাকা হাতে তুলে নেন। নতুন কর্মীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন পৌরনিগমের মেয়র পারিষদ অভিজিৎ ঘটক এবং আসানসোল উত্তর ব্লকের তৃণমূল সভাপতি উৎপল সিনহা।

আরও পড়ুন- মুকুলকে দলবদল করিয়ে তৃণমূলের উপর ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ চালিয়েছে বিজেপি

২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে আসানসোল কেন্দ্র থেকে জিতেছিলেন বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। যদিও পরবর্তী নির্বাচনগুলিতে সেভাবে গেরুয়ার দাপট দেখা যায়নি। তৃণমূলের তবাগত এক সদস্য জানিয়েছেন যে আসানসোলে কোনও কাজ হয়নি। প্রয়োজন ছাড়া বিজেপি নেতাদের এলাকায় পাওয়া যায় না। সেই সকল কারণেই শতাধিক বিজেপি কর্মী তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছে।

মেয়র পারিষদ অভিজিৎ ঘটকের মতে, “এই এলাকার অধিকাংশ যুবক বিজেপি করতো। এখন মোহভঙ্গ হয়েছে কর্মীদের। কারণ, ভোটের আগে দেওয়া উন্নয়নের কোনও প্রতিশ্রুতি রাখেননি আসানসোলের সাংসদ। তাই এত বিজেপি কর্মী একসঙ্গে তৃণমূলে যোগ দিয়েছে।”

Advertisement
----
-----