প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা নিয়ে স্বপ্নার ঘরে আলুওয়ালিয়া

জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের পাতকাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের ছোট্ট গ্রাম ঘোষপাড়া। জলপাইগুড়ি শহর লাগোয়া এই গ্রাম এতদিন ছিল প্রচারের আড়ালেই। অবশেষে এশিয়াডে ঘরের মেয়ের সোনা জিততেই ঘোষপাড়া গ্রামে এখন হাজার ওয়াটের আলো।

দু’দিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের শুভেচ্ছাবার্তা পৌঁছে গিয়েছিল স্বপ্নার বাড়িতে। আর্থিক পুরস্কার সহ সরকারী চাকরি, মুখ্যমন্ত্রীর শুভেচ্ছাদূত হিসেবে গ্রামে গিয়ে সব বিষয়েই স্বপ্নার পরিবারকে আশ্বস্ত করেছিলেন রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব।

তবে শুধুমাত্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীই নন, স্বপ্নার সাফল্যে গর্বিত দেশের প্রধানমন্ত্রীও। সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন আগেই। এবার কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী সুরেন্দ্র সিং আলুওয়ালিয়া মারফৎ নরেন্দ্র মোদির শুভেচ্ছা বার্তা পৌঁছে গেল ঘোষপাড়া গ্রামে স্বপ্না বর্মনের বাড়িতে।

- Advertisement -

শনিবার সকালে পাতকাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘোষপাড়া গ্রামে পৌঁছে যান দার্জিলিংয়ের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী সুরেন্দ্র আলুওয়ালিয়া। স্বপ্নার বাড়িতে গিয়ে তাঁর বাবা-মা’কে শুভেচ্ছা জানান তিনি। আলুওয়ালিয়া মারফৎ স্বপ্নার মা বাসনা বর্মন টেলিফোনে কথা বলেন কেন্দ্রের ক্রীড়ামন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিং রাঠোরের সঙ্গে। স্বপ্নার গর্বিত মা’কে টেলিফোনেই ৩০ লক্ষ টাকা আর্থিক পুরস্কারের কথা ঘোষণা করেন ক্রীড়ামন্ত্রী।

এশিয়াডে হেপ্টাথলনে দেশের হয়ে প্রথম সোনা জয় করেছে স্বপ্না। তাঁর এহেন সাফল্যে দেশের ক্রীড়ামন্ত্রক যে উচ্ছ্বসিত সেকথাও স্বপ্নার মা’কে জানান রাঠোর। আর্থিক পুরস্কারের পাশাপাশি আগামী ৪ সেপ্টেম্বর দিল্লিতে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে স্বপ্নাকে, জানিয়েছেন আলুওয়ালিয়া।

এরপর ৫ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজে দেখা করবেন সোনার মেয়ের সঙ্গে। এমনকি পছন্দমত কোন গুরুত্বপূর্ণ পদে চাকরি বেছে নেওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হবে স্বপ্নাকে।

সংবাদমাধ্যমকে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী জানান, ‘কেন্দ্রীয় সরকারের তত্ত্বাবধানেই স্বপ্না এতদিন কলকাতার প্রশিক্ষণ শিবিরে ছিল। আগামীতে ওঁর প্রশিক্ষণের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।’ এরপর কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীকে মিষ্টিমুখ করিয়ে দেন স্বপ্নার মা বাসনা বর্মন। স্বপ্নার মা’কেও মিষ্টিমুখ করান আলুওয়ালিয়া।

সবমিলিয়ে ঘোষপাড়া গ্রাম প্রত্যাশী সোনার মেয়ে এবার অলিম্পিক থেকেও ছিনিয়ে আনবে স্বর্ণপদক। যা এখন ‘সোনার মেয়ের গ্রাম’ নামেই পরিচিত।

Advertisement ---
---
-----